• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৩ জুলাই ২০২০ ২১:৪০:৪৪
  • ১৪ জুলাই ২০২০ ০৮:৫৫:০৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

সাহেদকে গ্রেপ্তার করতে আদালতের নির্দেশ

মোহাম্মদ সাহেদ। ফাইল ছবি

রাজধানীর রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক ও রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। ১৩ জুলাই, সোমবার সন্ধ্যায় অর্থ আত্মসাৎ মামলায় ঢাকা মুখ্য মহানগর মাজিস্ট্রেট মো. মাইনুল ইসলামের আদালত এই পরোয়ানা জারি করেন।

অভিযুক্ত সাহেদকে আগামী ১৩ আগস্টের মধ্যে হাজির করার জন্য উত্তরা পশ্চিম থানার ওসিকে নির্দেশ দেন আদালত।

মোহাম্মদ সাহেদের বিরুদ্ধে তিন কোটি ৬৮ লাখ টাকা জালিয়াতির দুটি মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করার জন্য এই পরোয়ানা জারি করে আদালত। কারওয়ান বাজারে অবস্থিত মাসুদ এন্টারপ্রাইজের মালিক এই মামলা দায়ের করেন।

ওই দুই মালায় তিনি অভিযোগ করেন, সাহেদের তিন কোটি ৬৮ লাখ টাকার মালামাল কিনে তার মূল্য পরিশোধ করেননি।

এ বিষয়ে মাসুদ জানান, সাহেদ ২০১৮ সালে দুই দফায় তার কাছ থেকে মোট তিন কোটি ৬৮ লাখ টাকার নির্মাণ সামগ্রী কিনলেও টাকা পরিশোধ করেননি। উল্টো তাকে হুমকি দেন। তিনি এ ঘটনায় উত্তরা পশ্চিম থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। পরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়েও অভিযোগ জানান।

এদিকে রিজেন্ট হাসপাতালের ভুয়া করোনার টেস্ট ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর থেকেই আত্মগোপনে চলে যান সাহেদ। তবে সাহেদ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নজরদারিতেই রয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। যে কোনো সময় গ্রেপ্তার হতে পারেন তিনি। এর মধ্যেই আদালত এই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করলো।

প্রসঙ্গত, প্রসঙ্গত, ৭ জুলাই, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জারি করা এক নির্দেশনায় রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর শাখা বন্ধের নির্দেশ দেয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। করোনার (কোভিড-১৯) পরীক্ষা না করেই ভুয়া রিপোর্ট দেয়া এবং মেয়াদপূর্তির পরও লাইসেন্স নবায়ন না করায় বন্ধের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ওই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, অনিয়মের অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় মেডিকেল প্র্যাক্টিস অ্যান্ড প্রাইভেট ক্লিনিক অ্যান্ড ল্যাবটরেটরি রেগুলেশন অর্ডিন্যান্স অনুযায়ী ওই হাসপাতালের কার্যক্রম অবিলম্বে বন্ধের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0757 seconds.