• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২৭ জুলাই ২০২০ ০০:১৬:১৫
  • ২৭ জুলাই ২০২০ ০০:১৬:১৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ইভ্যালিতে বসুন্ধরা ফুড চেইনের খাবার

ছবি : সংগৃহীত

ই-কমার্স ভিত্তিক দেশিয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস ইভ্যালি ডট কম ডট বিডি’তে পাওয়া যাবে বসুন্ধরা ফুড চেইনের খাবার। দেশের বৃহত্তম শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকানাধীন তিনটি চেইন রেস্টুরেন্ট বাবা রাফি বাংলাদেশ, সানফ্লাওয়ার রেস্টুরেন্ট এবং দ্য ফুড হলের খাবার এখন থেকে ইভ্যালিতেই অর্ডার করতে পারবেন গ্রাহকেরা।
 
রোববার (২৬ জুলাই) এলক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানটির দুইটির মধ্যে একটি সমঝোতা চুক্তিপত্র (এমওইউ) স্বাক্ষরিত। রাজধানীর বসুন্ধরা ইন্ডাস্ট্রিয়াল হেডকোয়ার্টার-২ এ অনুষ্ঠিত এই চুক্তি স্বাক্ষর পর্বে বসুন্ধরা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সাফওয়ান সোবহান তাসভির ও পরিচালক ইয়েসা সোবহান এবং ইভ্যালির চেয়ারম্যান শামিমা নাসরিন ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ রাসেল উপস্থিত ছিলেন।
 
এসময় ইয়েসা সোবহান বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষে এবং শামিমা নাসরিন ইভ্যালির পক্ষে চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেন।
 
এই চুক্তি অনুসারে, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্স এবং পূর্বাচল ৩০০ ফিট সড়ক সংলগ্ন মেহেদি ফুড কোর্টসহ রাজধানীতে অবস্থিত বসুন্ধরা ফুড চেইনের আওতাভুক্ত রেস্টুরেন্টগুলোর খাবার ইভ্যালিতেই অর্ডার করতে পারবেন গ্রাহকেরা। বাবা রাফি বাংলাদেশ, সানফ্লাওয়ার রেস্টুরেন্ট এবং দ্য ফুড হলে গ্রাহকদের অর্ডারকৃত খাবার সরবরাহ করবে ইভ্যালি। গ্রাহকদের জন্য আকর্ষণীয় অফারে খাবার হোম ডেলিভারি করা হবে বলে ইভ্যালির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।
 
চুক্তি স্বাক্ষর বিষয়ে ইভ্যালির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রাসেল বলেন, ই-ফুড নামে ইভ্যালির ফুড ডেলিভারি সেবা কার্যক্রম শুরু করে মাত্র দুই মাস আগে। ইভ্যালিতে নিবন্ধিত প্রায় ৩৫ লক্ষ গ্রাহক আছেন যাদেরকে আমরা এই ফুড ডেলিভারি সেবা দিতে চাই। সেই লক্ষ্যে আজকে আমরা বসুন্ধরা গ্রুপের প্রতিষ্ঠান বাবা রাফি, সানফ্লাওয়ার রেস্টুরেন্ট এবং দ্য ফুড হলের সাথে চুক্তি করি। এর মাধ্যমে এসব রেস্টুরেন্টের খাবার ইভ্যালির সিস্টার কনসার্ন ই-ফুডের মাধ্যমে গ্রাহকদের কাছে সরবরাহ করা হবে। এছাড়াও এসব রেস্টুরেন্টের ডাইন ইন সার্ভিসের সাথে কিভাবে ইভ্যালি যুক্ত হতে পারে সেই বিষয়েও কাজ করা হবে। বসুন্ধরা গ্রুপের সাথে যুক্ত হতে পারাটা আমাদের জন্য অতি আনন্দের এবং সম্মানের একটি বিষয়। বর্তমানে ঢাকায় থাকা বসুন্ধরার এসব রেস্টুরেন্টের খাবার সরবরাহ করা হবে। পরবর্তীতে ঢাকার বাইরের অন্যান্য শহরগুলোতেও এই সেবার পরিধি বাড়ানো হবে।
 
অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে বসুন্ধরা ইন্ডাস্ট্রিয়াল সেক্টর-সি এর চিফ ফিনান্সিয়াল অফিসার (একাউন্টস অ্যান্ড ফিনান্স) মির্জা মুজাহিদুল ইসলাম, বসুন্ধরা পেপার মিলস লিমিটেড ২ এর একাউন্টস অ্যান্ড ফিনান্স বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মোহাম্মদ কামরুল হাসান এবং সেক্টর-সি এর হেড অব মার্কেটিং মোহাম্মদ তৌফিক হাসান উপস্থিত ছিলেন। পাশাপাশি ইভ্যালির হেড অব কর্পোরেট বিজনেস সিরাজুল ইসলাম রানা এবং ই-ফুড বিভাগের প্রধান মোস্তাহিদ উল ইসলাম বাধনসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1039 seconds.