• ফিচার ডেস্ক
  • ০৭ আগস্ট ২০২০ ১৪:৪৩:২৭
  • ০৭ আগস্ট ২০২০ ১৪:৪৩:২৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

অসুস্থ হলে ডাক্তার ডাকবে স্যামসাং স্মার্টওয়াচ!

ছবি : সংগৃহীত

বুধবার অনুষ্ঠিত হয়ে গেল দ্যা গ্যালাক্সি Unpacked ইভেন্ট। এই ইভেন্টে স্যামসাং তাদের বিভিন্ন গ্যালাক্সি ডিভাইস উন্মোচন করেছে, যার মধ্যে অন্যতম স্যামসাং গ্যালাক্সি ওয়াচ ৩। এই বিশেষ স্মার্ট ওয়াচ উন্মোচন করা হয়েছে দুটি আকারে – ৪১ মিলিমিটার এবং ৪৫ মিলিমিটার মডেলে।

প্রথমে আসা যাক বড় মডেলটিতে অর্থাৎ ৪৫ মিলিমিটারের মডেলে। এই মডেলে আপনারা ১.৪ ইঞ্চির রাউন্ড টাচস্ক্রিন ডিসপ্লে পেয়ে যাবেন যার সঙ্গে থাকছে ৩৪০ মিলি অ্যাম্পিয়ার এর ব্যাটারী। এছাড়া এই ঘড়িতে থাকছে অ্যামোলেড ডিসপ্লে এবং কর্নিং গরিলা গ্লাস প্রটেকশন। অন্যদিকে, ছোট মডেল অর্থাৎ ৪১ মিলিমিটারের মডেলে থাকতে চলেছে ১.২ ইঞ্চির ডিসপ্লে এবং ২৪৭ মিলি অ্যাম্পিয়ার এর ব্যাটারি। এই মডেলেও আপনারা পাবেন অ্যামোলেড ডিসপ্লে এবং কর্নিং গোরিলা গ্লাস প্রটেকশন।

এই নতুন স্যামসাং গ্যালাক্সি ওয়াচ ৩ চলবে নতুন টিজেন ওস ৫.৫ এর ওপরে এবং এতে আপনারা পাবেন সর্বাধিক ১ জিবি র‌্যাম ও সর্বাধিক ৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। এছাড়া এই স্মার্টওয়াচে দেওয়া হয়েছে এক্সিনোস ৯১১০ ডুয়াল কোর ১.১৫ গিগাহার্জ চিপসেট। এই নতুন স্মার্টওয়াচ আসছে দুটি ভ্যারিয়েন্টে – প্রথমটি ব্লুটুথ এবং ওয়াই ফাই কানেকশন এবং দ্বিতীয়টি এলটিই কানেকশন। অন্যদিকে, LTE মডেলের সঙ্গে আসছে ইসিম সাপোর্ট এবং ফোরজি কানেক্টিভিটি অপশন। এছাড়াও আপনারা স্পিকার এবং মাইকের মাধ্যমে সরাসরি আপনার স্মার্টওয়াচ এর মাধ্যমে কল করতে পারবেন।

গ্যালাক্সি ওয়াচ ৩ এর সার্কুলার ডায়ালে আপনারা পাবেন রোটেটিং বেজেল এবং সাইডে পাবেন দুটি বাটন। এছাড়া বাটনের সাথে থাকছে একটি মাইক্রোফোন। গ্যালাক্সি ওয়াচ ৩ অ্যাটমোস্ফিয়ারিক প্রেসার সেন্সর, জিপিএস অ্যান্টেনা, SpO2 সেন্সর, অ্যাম্বিয়েন্ট লাইট সেন্সর, জাইরো সেন্সর, ব্যারোমিটার, টাচস্ক্রিন এবং স্পিকারের সাথে এসেছে। এছাড়া স্মার্টওয়াচগুলি আপনার ব্লাড প্রেসার এবং হার্ট রেট মাপতে পারে ও আপনার স্লিপ মনিটরিং করতে পারে। এছাড়াও আপনারা পাচ্ছেন স্যামসাং এর বিক্সবি ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট।

SpO2 সেনসর থাকার কারণে আপনি এই স্মার্টওয়াচের মাধ্যমে জেনে নিতে পারবেন, যে আপনার রক্তে বর্তমানে অক্সিজেন লেভেল কতটা আছে। করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হলে শরীরে অক্সিজেন লেভেল অনেকটা নেমে যায়। তাই এই সেন্সর থেকে আপনি কিছুটা আন্দাজ করতে পারবেন যে আপনার শরীরে করোনা সংক্রমণ হয়েছে নাকি না।

আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ ফিচার রয়েছে এই গ্যালাক্সি ওয়াচ ৩ এ। এতে আপনারা পাবেন ECG মনিটরিং, ৫ এটিএম আইপি ৬৮ ওয়াটার রেসিস্টেন্ট ফিচার। এছাড়া এই ঘড়ির একটি বিশেষ ফিচার হলো, ট্রিপ বা ফল ডিটেকশন ফিচার। এই ফিচারের সাহায্যে আপনি অজ্ঞান হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সেট করা এমার্জেন্সি নম্বরে একটি মেসেজ পাঠিয়ে দেওয়া হবে। এই মেসেজ পাঠানো হবে যদি আপনি এক মিনিটের মধ্যে একেবারও রেসপন্স না করেন তখন, অথবা আপনার শরীর খারাপ হয়েছে তখন। এই ফিচার ১ মিনিটের জন্য আপনার ঘড়িতে বাজবে এবং তার মধ্যে যদি আপনি কোনো রেসপন্স না করেন তখন ওই মেসেজ পাঠানো হবে।  

এই নতুন গ্যালাক্সি ওয়াচ ৩ এর ৪১ মিলিমিটার মডেলের দাম ৩৯৯.৯৯ মার্কিন ডলার থেকে। এবং ৪৫ মিলিমিটার মডেলের দাম ৪২৯ মার্কিন ডলার।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1189 seconds.