• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৩ আগস্ট ২০২০ ১৯:৫৬:৩৮
  • ১৩ আগস্ট ২০২০ ১৯:৫৬:৩৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

‘অস্বাভাবিক ব্যয়’ কমাতে মন্ত্রীসহ ৩০ সচিব একমত

ছবি : সংগৃহীত

বর্তমান শেখ হাসিনা সরকারের সময়ে প্রকল্পগুলোতে অস্বাভাবিক ব্যয় লক্ষ্য করা গেছে। যা নিয়ে অনেক সমালোচনাও হয়েছে। খোদ প্রধানমন্ত্রীও এ বিষয়ে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন। বিষয়টি স্বীকার করে এই অস্বাভাবিক ব্যয় কমানোর ব্যাপারে মন্ত্রীসহ ৩০ জন সচিব একমত হয়েছেন। 

১৩ আগস্ট, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিবসহ ৩০ মন্ত্রণালয়ের সচিবের সঙ্গে বৈঠক করেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এই সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘আমরা সবাই একমত হয়েছি যে, করোনার জন্য নয়, অপ্রয়োজনীয় ব্যয় যেকোনো পরিস্থিতিতে আমাদের পরিহার করতে হবে। এটা অপরিহার্য। প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিভিন্ন সময় আমি শেয়ার করেছি। তিনি বিরক্তি প্রকাশ করেছেন। তিনি আমাদের এ সমন্ধে নির্দেশনা দিয়েছেন যে, এগুলো গ্রহণ করবেন না।’

তিনি আরো বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নজরেও বিষয়টি আসছে। বিশেষ প্রকল্পের রিভিশন নিয়ে তিনি প্রায়ই প্রশ্ন করেন, এত রিভিশন কেন করেন। প্রথমে বললেন দু-তিন বছরের প্রকল্প। তারপর এক বছরের মাথায় এসে বলেন, চার বছর লাগবে। আরেক বছর পর আবার এসে বললেন ব্যয় বাড়াতে হবে। এগুলো তিনি মনে করেন যে, শৃঙ্খলাবিরোধী। এটা আমরা বিস্তারিত আলোচনা করেছি।’

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘সরকারের অর্থ নয়, জনগণের অর্থ। জনগণের অর্থ যদি অপচয় হয় বা খরচ বেশি করি, এটা গ্রহণযোগ্য নয়। করোনা হোক বা না হোক, কোনো সময়ই জনগণের অর্থ নিয়ে নয়-ছয় হতে দেয়া যাবে না, এটা নিয়ে আমরা আলোচনা করেছি।’

তিনি আরো বলেন, কীভাবে এটাকে উতরে আসা যায়, এ বিষয়ে আমরা সবাই মিলে একমত হয়েছি, আমরা যার যার অবস্থান থেকে এটা মোকাবিলা করবো। এ বছর থেকে কাজ শুরু করলাম, নতুন প্রকল্পগুলোর জন্য আমরা অনেকটা স্ট্রিনজেন হবো। প্লানিং কমিশনে আমরা মোস্ট স্ট্রিনজেন হবো। যারা প্রকল্প তৈরি করবে, তারা আগের তুলনায় অনেক বেশি সাবধানতা অবলম্বন করবেন। যাতে এ ধরনের কাজ আগামীতে আর না হয়।’

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.1364 seconds.