• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৪ আগস্ট ২০২০ ১৩:৩৬:৪৬
  • ১৪ আগস্ট ২০২০ ১৬:০৯:০৩
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

সংঘর্ষে নয় পিটিয়ে ৩ কিশোরকে হত্যা, আটক ১০

ছবি : সংগৃহীত

সংঘর্ষে নয় পিটিয়ে যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের (বালক) তিন কিশোরকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় ১০ জনকে আটক করেছে পুলিশ। ১৪ আগস্ট, শুক্রবার দুপুরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ডিএসবি তৌহিদুল ইসলাম গণমাধ্যমের কাছে এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর আগে ১৩ আগস্ট, বৃহস্পতিবার দুপুরে যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে তিন কিশোর নিহত হয়। এ ঘটনায় আরো ১৪ জন আহত হয়। ওই সময় কিশোরদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ওই তিনি কিশোর নিহত হয় বলে জানানো হয়েছিল।

তবে হাসপাতালে ভর্তি বন্দী কিশোররা জানায়, কর্মকর্তা ও আনসার সদস্যদের বেধড়ক মারপিটে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে বন্দীদের এ হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া পুলিশ ও প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাও প্রাথমিকভাবে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নিহতরা হচ্ছে- বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার তালিবপুর পূর্ব পাড়ার নাঈম হোসেন (১৭), খুলনার দৌলতপুরের পারভেজ হাসান রাব্বি (১৮) এবং বগুড়ার শেরপুর উপজেলার মহিপুর গ্রামের রাসেল হোসেন (১৮)। এর মধ্যে নাঈম ধর্ষণ এবং পারভেজ হত্যা মামলায় শিশু কেন্দ্রে ছিলো।

পুলিশের খুলনা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি একেএম নাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘এখানে আসলে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেনি। আজকের ঘটনাটি একপাক্ষীক।’

তিনি আরো বলেন, ঘটনাটি প্রায় ছয় ঘণ্টা পর জানা গেছে। স্থানীয় সংবাদকর্মীরাও সন্ধ্যার পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে ঘটনাটি জেনেছেন। তিনি নিজেও রাত ১০টার পর ঘটনা জেনে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে এসেছেন।

অতিরিক্ত ডিআইজি আরো বলেন, কেন এমন ঘটনা ঘটেছে তা পুলিশ তদন্ত করবে। প্রশাসনের পক্ষ থেকেও তদন্ত করা হবে। আর ক্ষতিগ্রস্ত কিশোরদের স্বজনরা মামলা করলে পুলিশ মামলা নেবে। তবে তদন্তাধীন ঘটনা হওয়ায় আর কিছু জানাননি তিনি।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1149 seconds.