• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৮ অক্টোবর ২০২০ ১৫:২১:৫৯
  • ০৮ অক্টোবর ২০২০ ১৫:২১:৫৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

‘ট্রাম্প মার্কিন ইতিহাসের সবচেয়ে ব্যর্থ প্রেসিডেন্ট’

কামলা হ্যারিস ও মাইক পেন্স ছবি : সংগৃহীত

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ভাইস প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী মাইক পেন্স ও কামলা হ্যারিসের মধ্যে বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে করোনা (কোভিড-১৯) মহামারী নিয়ে তাদের মধ্যে প্রচণ্ড সংঘাত হয়। ৭ অক্টোবর, বুধবার রাতে সল্টলেক সিটির ইউটাহ বিশ্ববিদ্যালয়ে তাদের মধ্যে এই বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় ডোনাল্ড ট্রাম্পকে মার্কিন প্রশাসনের ইতিহাসে সবচেয়ে ব্যর্থ প্রেসিডেন্ট হিসেবে দাবি করেন ড্রেমোক্রেট প্রার্থী কামলা হ্যারিস। আর কমলাকে উদ্দেশ্যে করে রিপাবলিক প্রার্থী ও ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেন, তার দলের মহামারী সংক্রান্ত পরিকল্পনার অধিকাংশই চুরি করা। এমন খবর প্রকাশ করেছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

এদিকে সমীক্ষায় দেখা গেছে, রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী কয়েকটি রাজ্য পিছিয়ে রয়েছেন। প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ এই রাজ্যগুলোই নির্ধারণ করবে কে জয়লাভ করবেন।

এই বিতর্কটি গত সপ্তাহের অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও বাইডেনের বিতর্কের চেয়ে সুন্দরভাবে সম্পন্ন হয়েছে। যেখানে ট্রাম্প ও বাইডেনের বিতর্কটি অবমাননা ও গালাগালিতে অধঃপতিত হয়েছিল। এই সময় মি. পেন্স গত সপ্তাহে ট্রাম্পের মতো কথা বলার মাঝে তেমন বাধা দেননি। তবে তাদের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়।

এ সময় হ্যারিসন অভিযোগ করেন, মি. পেন্স এবং প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ইচ্ছাকৃতভাবে করোনাভাইরাসের ক্ষতিকর দিক নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে ভুল পথে পরিচালিত করেছে।

তিনি বলেন, তারা জানতো তারা এটাকে ঢেকে রাখতে পারবে। এর মধ্যে দিয়ে তারা পুনরায় নির্বাচিত হওয়ার অধিকার হারিয়েছেন।

এদিকে মি. পেন্স দাবি করেন, বাইডেন-হ্যারিসন হোয়াট হাউজের মহামারী সংক্রান্ত পরিকল্পনা নকল করেছে।

এছাড়াও দেড় ঘণ্টার এই বিতর্কে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি, পররাষ্ট্র নীতি, আইনশৃঙ্খলা, অভিবাসন, স্বাস্থ্য সেবা, শিক্ষা, সুপ্রিম কোর্টে বিচারপতি নিয়োগের মতো বিষয়গুলো তাদের আলোচনায় উঠে আসে।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0888 seconds.