• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০৯ অক্টোবর ২০২০ ১৭:৩৩:০৬
  • ০৯ অক্টোবর ২০২০ ১৭:৩৩:০৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ধর্ষণের বিচার দাবিতে রাবি শিক্ষকের পদযাত্রা

ছবি : সংগৃহীত

রাবি প্রতিনিধি :

দেশব্যাপী ধর্ষণ, যৌন নিপীড়ন ও নারীর প্রতি ক্রমবর্ধমান সহিংসতার প্রতিবাদে আবারো খালি পায়ে পদযাত্রা করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. ফরিদ খান। ৯ অক্টোবর, শুক্রবার সকাল ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জোহা চত্বর থেকে সাহেব বাজার জিরো পয়েন্ট পর্যন্ত খালি পায়ে হাঁটেন তিনি।

এ সময় আরবি বিভাগের অধ্যাপক ড. ইফতেখারুল আলম মাসউদ, অর্থনীতি বিভাগের এমফিল গবেষক মাহমুদুন নবী মণি ও কয়েকজন শিক্ষার্থীও এই পদযাত্রায় অংশ নেন।

ড. ফরিদ কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, যশোরের মনিরামপুরে তিন ব্যক্তিকে সহকারী কমিশনারের কান ধরানো এবং দুর্নীতিমুক্ত শিক্ষাঙ্গনের দাবিতেও খালি পায়ে কর্মসূচি পালন ও নিজের কান ধরে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার নিজের ফেইসবুক পেইজে পদযাত্রায় আহ্বান জানিয়ে তিনি একটি স্ট্যাটাস দেন। স্ট্যাটাসে উল্লেখ করেন, ‘আমাদের সমাজ দিনে দিনে নারীদের জন্য চরম অনিরাপদ হয়ে যাচ্ছে। সমাজে নারীদের অনিরাপত্তা কখনো ডিফল্ট অপশন হতে পারে না। এই সমাজ নিয়ে আমরা লজ্জিত। আমরা ধর্ষণমুক্ত সমাজ চাই। আসুন এইসব মধ্যযুগীয় বর্বরতা এই মাটি থেকে বিদায় করি। আসুন নীরবতা ভেঙে সব ধরনের ধর্ষণ, যৌন নিপীড়ন, যৌন হয়রানি এবং নারীদের প্রতি সহিংসতার বিরুদ্ধে সোচ্চার হই। আজকে অন্য কেও কাল হয়তো আমার আপনার বোন কিংবা মেয়ের ক্ষেত্রে হতে এমনটি হতে পারে। একজন ধর্ষণকারী মানুষ না, মানুষের চেহারায় একটি পশু। আসুন এইসব পশুদের রুখে দেই, মানবতা রক্ষা করি। আমরা রিপাবলিক অফ বাংলাদেশ, রেপ পাবলিক অফ বাংলাদেশ নই!’

পদযাত্রার বিষয়ে জানতে চাইলে ড. ফরিদ বলেন, দেশব্যাপী নারীদের ওপর চলমান নৈরাজ্য, সহিংসতা, ধর্ষণের প্রতিবাদে আমরা আজ পথে দাঁড়িয়েছি। নারীদের প্রতি সম্মান জানাতেই আমরা খালি পায়ে পদযাত্রা করছি। আমরা একটি ধর্ষণমুক্ত সমাজ চাই।

তিনি আরো বলেন, ‘বর্তমান সমাজে ধর্ষণ একটি ব্যধি হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমাদের এখনই সময় নিজ নিজ জায়গা থেকে স্বোচ্চার হওয়ার। আজ নোয়াখালীতে নারী নির্যাতন হয়েছে কাল যে আমাদের মা-বোন হবে না তার কোনো নিশ্চয়তা নেই। রাষ্ট্র আইন করে তবে তার প্রয়োগ যথাযথ করতে পারে না। তাই আমাদের সবাইকে সচেতন হতে হবে। মূলত একটা ভালো সমাজের জন্য এবং সমাজের যাবতীয় অসঙ্গতিগুলোর বিরুদ্ধেই আমাদের এই পদযাত্রা।’

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0884 seconds.