• বিদেশ ডেস্ক
  • ১৫ অক্টোবর ২০২০ ০৯:২৪:৪৯
  • ১৫ অক্টোবর ২০২০ ০৯:৪৭:৪৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

একদিনে প্রায় ৪ লাখ মানুষের শরীরে করোনা শনাক্ত

ফাইল ছবি

গত ২৪ ঘণ্টায় নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে সারা পৃথিবীতে আরো ৬ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে প্রায় চার লাখ মানুষের শরীরে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এই বৈশ্বিক মহামারীতে মৃতের সংখ্যা প্রায় ১০ লাখ ৯৭ হাজার। সরকারি হিসেবে, মোট আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৩ কোটি সাড়ে ৮৭ লাখ ছুঁইছুঁই।

পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার’র তথ্য মতে, আজ ১৫ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত সারা পৃথিবীতে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ৩ কোটি ৮৭ লাখ ৪৩ হাজার ৮৬৪ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্যে ১০ লাখ ৯৬ হাজার ৮৭৬ জন ইতোমধ্যে মারা গেছেন। বিপরীতে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ কোটি ৯১ লাখ ২৩ হাজার ৫৪২ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন ৮৫ লাখ ২৩ হাজার ৪৪৬ জন করোনারোগী, যাদের মধ্যে ৭০ হাজার ৪৩১ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত পৃথিবীর সর্বোচ্চ ৮১ লাখ ৫০ হাজার ৪৩ জন মানুষের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। ভারতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৭৩ লাখ ৫ হাজার ৭০ জনের শরীরে ভাইরাসটির ধরা পড়েছে। ব্রাজিলে তৃতীয় সর্বোচ্চ ৫১ লাখ ৪১ হাজার ৪৯৮ জনের শরীরে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া রাশিয়ায় চতুর্থ সর্বোচ্চ ১৩ লাখ ৪০ হাজার ৪০৯ জন ও স্পেনে পঞ্চম সর্বোচ্চ ৯ লাখ ৩৭ হাজার ৩১১ জনের কোভিড-১৯ ধরা পড়েছে।

শীর্ষ দশে থাকা অন্য দেশগুলো হলো—আর্জেন্টিনা (৯ লাখ ৩১ হাজার ৯৬৭ জন), কলম্বিয়া (৯ লাখ ৩০ হাজার ১৫৯ জন), পেরু (৮ লাখ ৫৬ হাজার ৯৫১ জন), মেক্সিকো (৮ লাখ ২৯ হাজার ৩৯৬ জন) ও ফ্রান্স (৭ লাখ ৭৯ হাজার ৬৩ জন)।

২ লাখ ২১ হাজার ৮৪৩ জনের মৃত্যুতে কোভিড-১৯ মহামারীর প্রাণহানিতেও শীর্ষে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১ লাখ ৫১ হাজার ৭৭৯ জন। ভারতে তৃতীয় সর্বোচ্চ ১ লাখ ১১ হাজার ৩১১ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া মেক্সিকোতে চতুর্থ সর্বোচ্চ ৮৪ হাজার ৮৯৮ জন ও যুক্তরাজ্যে পঞ্চম সর্বোচ্চ ৪৩ হাজার ১৫৫ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা।

এ হিসেবে শীর্ষ দশে রয়েছে—ইতালি (মৃত্যু ৩৬ হাজার ২৮৯ জন), পেরু (মৃত্যু ৩৩ হাজার ৫১২ জন), স্পেন (মৃত্যু ৩৩ হাজার ৪১৩ জন), ফ্রান্স (মৃত্যু ৩৩ হাজার ৩৭ জন) ও ইরান (মৃত্যু ২৯ হাজার ৩৪৯ জন)।

এছাড়া কলম্বিয়ায় ২৮ হাজার ৩০৫ জন (১১তম), আর্জেন্টিনায় ২৪ হাজার ৯২১ জন (১২তম), রাশিয়ায় ২৩ হাজার ২০৫ জন (১৩তম), দক্ষিণ আফ্রিকায় ১৮ হাজার ১৫১ জন (১৪তম), চিলিতে ১৩ হাজার ৪১৫ জন (১৫তম), ইকুয়েডরে ১২ হাজার ২৬৪ জন (১৬তম), ইন্দোনেশিয়ায় ১২ হাজার ১৫৬ জন (১৭তম), বেলজিয়ামে ১০ হাজার ২৭৮ জন (১৮তম), ইরাকে ১০ হাজার ২১ জন (১৯তম), জার্মানিতে ৯ হাজার ৭৭১ জন (২০তম), কানাডায় ৯ হাজার ৬৬৪ জন (২১তম), তুরস্কে ৯ হাজার ১৪ জন (২২তম), বলিভিয়ায় ৮ হাজার ৩৭৭ জন (২৩তম), নেদারল্যান্ডসে ৬ হাজার ৬৬৩ জন (২৪তম), পাকিস্তানে ৬ হাজার ৬১৪ জন (২৫তম), ফিলিপাইনে ৬ হাজার ৪৪৯ জন (২৬তম), মিসরে ৬ হাজার ৭৭ জন (২৭তম), সুইডেনে ৫ হাজার ৯০৭ জন (২৮তম), রোমানিয়ায় ৫ হাজার ৬০১ জন (২৯তম) ও বাংলাদেশে ৫ হাজার ৫৯৩ জন (৩০তম) করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।

বাংলা/এসএ/

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0812 seconds.