evaly
  • বিদেশ ডেস্ক
  • ২৭ অক্টোবর ২০২০ ১৭:২৮:১৯
  • ২৭ অক্টোবর ২০২০ ১৭:২৮:১৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

খালি পেটে ঘি খাওয়ার যতো গুণ

ফাইল ছবি

রান্নার স্বাদ বাড়াতে ঘিয়ের জুড়ি নেই। তবে শুধু স্বাদই নয়, শরীরের জন্যও অনেক উপকারি এই ঘি। বিশেষ করে সকালে খালি পেটে গরম পানির সঙ্গে মিশিয়ে ঘি খেলে নানা উপকার পাওয়া যায়। খালি পেটে ঘি ও গরম পানি একসঙ্গে খাওয়ার অভ্যাস করলে শরীরের নানাবিধ রোগ দূর হয় বলে জানান আয়ুর্বেদ চিকিৎসকরা।

ঘির মধ্যে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। যা শরীরের নানা রকম রোগের প্রকোপ থেকে রক্ষা করে। তবে সকালে উঠে ঘি খাওয়ার পর ৩০ মিনিট আর কিছু খাওয়া যাবে না। ঘি নিয়ে এমন প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে নিউজ এইট্টিন।

ঘিয়ের মধ্যে স্বাভাবিক অ্যামাইনো এসিড রয়েছে। যা পেটের অস্বাভাবিক চর্বি কমাতে সাহায্য করে। এছাড়াও ওমেগা থ্রি, ওমেগা ফ্যাটি এসিড দেহের অপ্রয়োজনীয় ফ্যাট কমায়। এতে ব্যাট কোলেস্টেরল কমবে এবং শরীর সুস্থ হবে। তাই যারা ওজন কমাতে চান তারা খালি পেটে ঘি খেলে অনেক উপকার পেতে পারেন।

খালি পেটে ঘি খেলে মস্তিষ্কের কাজ অনেক বেড়ে যায়। ফ্যাট মস্তিষ্কের বিভিন্ন অংশের কাজ সঠিক ভাবে করতে সাহায়তা করে থাকে। আর ফ্যাটের সবচেয়ে ভাল উৎস হলো ঘি। এছাড়া ঘিতে থাকা নানা রকম প্রোটিন মস্তিষ্কের প্রোটিনের অভাব পূরণ করে। ফলে মস্তিষ্ক আরো ভালোভাবে কাজ করতে পারে। এছাড়াও স্মরণশক্তি বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে ঘি।

শরীরে অস্টিওপোরোসিসের মতো রোগ দূর করতেও সাহায্য করে ঘি। একটি লিকুইড বিভিন্ন হাড়ের জয়েন্টে স্বাভাবিক লুব্রিকেন্ট হিসেবে কাজ করে থাকে। তাই খালি পেটে ঘি খেলে এই লুব্রিকেন্ট তৈরি হয়। এর ফলে হাড়ের জয়েন্টের নানারকম সমস্যা দূর হয়। এছাড়াও অত্যাধিক পরিমাণ বাড়তে থাকা ক্যালসিয়ামকে নিয়ন্ত্রণ করতেও সহায়ক ঘি।

এদিকে শরীরে রক্ত সঞ্চালনে বিশেষ কাজ করে ঘি। তাই সকালে খালি পেটে ঘি খাওয়ার অভ্যাস করলে শরীরে সারাদিন রক্তসঞ্চালনে বিশেষ সুবিধা হবে। এছাড়াও শরীরের বিভিন্ন কোষে ফ্রিরেডিকেল কমাতে সাহায্য করে ঘি।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ঘি খালি পেট উপকারিতা গুণ

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0818 seconds.