evaly
  • বিদেশ ডেস্ক
  • ০৬ নভেম্বর ২০২০ ২১:০২:৪০
  • ০৬ নভেম্বর ২০২০ ২১:০২:৪০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

দূষিত এলাকায় করোনায় মৃত্যু বেশি : গবেষণা

ছবি : সংগৃহীত

বায়ুদূষণ যত বাড়ে তা ততোই মানুষের শ্বাসযন্ত্রের ওপর বিরুপ প্রভাব ফেলে। যা করোনা (কোভিড-১৯) মহামারীতে আরো বেশি ক্ষতির কারণে হতে পারে। কারণ বায়ুতে দূষণের মাত্রা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে করোনার সংক্রমণও বাড়বে। এমটাই দাবি করা হয়েছে এক গবেষণায়।

সাধারণ এলাকার চেয়ে অত্যাধিক দূষিত এলাকায় করোনা রোগীদের মৃত্যু সবচেয়ে বেশি। মৃত্যুর এই হার ১১ শতাংশ বেশি। সম্প্রতি হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় এই তথ্য উঠে আসে। এমন খবর প্রকাশ করেছে সংবাদমাধ্যম নিউজ এইট্টিন।

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়কে এই গবেষণায় তথ্য দিয়ে সহায়তা করেছে জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়। অন্য তথ্যগুলো কম্পিউটার মডেল ও অ্যাটমোসফেরিক ডাটা থেকে এসেছে।

ওই গবেষণা বলা হয়, বাতাসে গাড়ির ধোঁয়া ছাড়াও বিভিন্ন সূত্র থেকে নির্গত দূষিত কণা ২.৫ মাইক্রোমিটার পর্যন্ত পাওয়া যায়। এই মাত্রা সামান্য এদিক-সেদিক হলেই পরিণতি ভয়াবহ হতে পারে। যেমন- প্রতি কিউবিক মিটারে এক মাইক্রোগ্রাম দূষিতকণা বৃদ্ধি পেলেই, মৃত্যুর হার ১১ শতাংশ বেড়ে যাবে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রে দূষণ হটস্পট স্থান বিশেষে পাল্টে যায়। এই গবেষণা করতে দেশটিতে বিভিন্ন রাজ্যে ৩ হাজার ৮৯টি কাউন্টি থেকে তথ্য সংগ্রহ করা হয়। সেই তথ্যের ভিত্তিতে এই দাবি করা হয়। কোথাও যদি দূষণের মাত্রা শূন্য হয়, অন্য জায়গাতে সেটি প্রতি কিউবিক মিটারে ১২ মাইক্রোগ্রামও হতে পারে।

এখন প্রশ্ন হলো, কীভাবে দূষণের কারণে করোনার প্রভাব আরো বৃদ্ধি পেতে পারে?

এ বিষয়ে গবেষণায় বলা হয়, দূষিতকণা বা পলিউট্যান্ট যদি মানুষের শরীরের ভিতরে প্রবেশ করলে দেহের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা অনেকটাই কমে যায়। এছাড়া এটি শ্বাসযন্ত্রকেও অনেকাংশে বিকল করে দেয়। আর যাদের অধিক করোনা সংক্রমণ হয়েছে, তাদের বেশিরভাগই শ্বাসকষ্টে ভুগতে দেখা গেছে।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0771 seconds.