evaly
  • ক্রীড়া প্রতিবেদক
  • ১৫ নভেম্বর ২০২০ ২১:২৩:৩৫
  • ১৫ নভেম্বর ২০২০ ২১:২৩:৩৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

বিশ্বকাপজয়ী যুব স্কোয়াড সদস্যের আত্মহত্যা

সজিবুল ইসলাম সজিব। ছবি : সংগৃহীত

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী যুব স্কোয়াড সদস্য সজিবুল ইসলাম সজিব আত্মহত্যা করেছেন। ১৪ নভেম্বর, শনিবার গভীর রাতে রাজশাহীর দুর্গাপুরে নিজ ঘরে আড়ার সাথে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

নিহতের স্বজনেরা জানান, গতকাল শনিবার গভীর রাতে গোপনে নিজ ঘরে আড়ার সাথে গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন সজিব। আসন্ন বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে সুযোগ না পাওয়ার হতাশা থেকেই সজিব আত্মহত্যা করেছেন বলেও দাবি করেন তার স্বজনরা।

তবে সজিবের স্বজনদের এমন দাবি অস্বীকার করছেন বিসিবি পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন।

নিহতের বড় ভাই তশিকুল ইসলাম জানান, সজিবের ছোট থেকেই ক্রিকেট খেলার প্রতি অনেক আগ্রহ ছিলো। তাই নিজেকে প্রতিষ্ঠিত খেলোয়াড় হিসেবে গড়ে তুলতে রাজশাহী কাটাখালি ‘বাংলা ট্র্যাক’ নামের একটি ক্রিকেট একাডেমিতে ভর্তি হয়। সেই ক্রিকেট একাডেমির সিইও এবং হেড কোচ হলেন খালেদ মাহমুদ সুজন।

এ বিষয়ে খালেদ মাহমুদ সুজন জানান, বিশ্বাসই করতে পারছি না সজিবের মতো ভদ্র, প্রতিভাবান একটা ছেলে এমন কাজ করতে পারে! এই খবর শুনে মনটা খুব খারাপ হয়ে গেছে। সে ওপেনার এবং মিডিয়াম পেসার ছিল। বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের প্লেয়ার ড্রাফটেই ওর নাম ছিলো না। এজন্য সজিব আত্মহত্যা করতে পারে বলে মনে করেন না তিনি।

প্রসঙ্গত, সজীব অনূর্ধ্ব ১৫, ১৭ ও ১৯ দলে খেলেছেন। জাতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ দলের খেলোয়াড় হয়ে শ্রীলঙ্কা সফরেও গিয়েছিলেন তিনি। এছাড়াও ভারতের বিপক্ষে ৯৫ রানের একটা ইনিংসও করেছিলেন সজিব। সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে খেলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তিনি। তবে প্লেয়ার ড্রাফটে তার নাম না থাকায় কোনো দল পাওয়ার সম্ভাবনা ছিলো না তার।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.1100 seconds.