• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২৯ নভেম্বর ২০২০ ১১:৩৫:৪৪
  • ২৯ নভেম্বর ২০২০ ১১:৩৫:৪৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

স্ত্রী এলোপাতারি কোপে আ.লীগ নেতা হাসপাতালে

আহত ফরিদ উদ্দিন মাসুদ। ছবি : সংগৃহীত

শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে স্ত্রীর দায়ের কোপে গুরুতর আহত হয়েছেন এক আওয়ামী লীগ নেতা। গতকাল ২৮ নভেম্বর, শনিবার বিকালে উপজেলার নাগেরপাড়া ইউনিয়নের পখমসাড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত ফরিদ উদ্দিন মাসুদ (৫০) বর্তমানে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তিনি গোসাইরহাট উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক। উপজেলার বড়কালীনগর গ্রামের সিদ্দিকুর রহমান আকনের ছেলে মাসুদ। আর অভিযুক্ত সুলতানা রাজিয়া (৪০) তার দ্বিতীয় স্ত্রী। এই দম্পতির দুই কন্যা সন্তান রয়েছে।

জানা গেছে, উপজেলার নাগেরপাড়া বাজার বণিক সমিতির নির্বাচনে শনিবার সকাল থেকে সময় দিচ্ছিলেন ফরিদ উদ্দিন মাসুদ। দুপুরের খাবার থেকে আরো কয়েকজনকে নিয়ে বাসায় যান তিনি। তার স্ত্রী সুলতানা রাজিয়া তাদের খাবার পরিবেশন করছিলেন।

হঠাৎ পারিবারিক বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা বেঁধে যায়। এরই এক পর্যায়ে সুলতানা রাজিয়া পেছন থেকে স্বামীকে দা দিয়ে এলোপাতারি কোপাতে থাকেন।

অতিথিরা তাকে নিবৃত্ত করে দ্রুত মাসুদকে উদ্ধার করে গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। কিন্তু অবস্থা গুরুতর হওয়ায় সাথেসাথেই সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

গোসাইরহাট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবু বকর এ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘আওয়া্মী লীগ নেতা ফরিদ উদ্দিন মাসুদকে কোপানোর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। ঘটনাস্থল থেকে ওই নেতার স্ত্রী সুলতানা রাজিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।’

যে দা দিয়ে মাসুদকে কোপানো হয়েছে, সেটি জব্দ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

বাংলা/এসএ/

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1039 seconds.