• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৫ ডিসেম্বর ২০২০ ১৬:০২:২০
  • ২৫ ডিসেম্বর ২০২০ ১৬:০২:২০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

চীনের অর্ধেক মানুষ অতিরিক্ত ওজন সমস্যায় ভুগছেন

ছবি : সংগৃহীত

চীনে ৫০ কোটিরও বেশি প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ অতিরিক্ত ওজন সমস্যায় ভুগছেন। এই সংখ্যা দেশটির মোট জনগোষ্ঠীর প্রায় অর্ধেক। প্রযুক্তিগত উন্নয়ন ঘটায় শারীরিক শ্রম কমা এবং কাজের চাপে নিয়মিত ব্যায়াম না করতে পারার কারণে মাত্রাতিরিক্ত ওজন বাড়ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশনের (এনএইচসি) প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে আসে। গত বুধবার প্রতিবেদনটি প্রকাশ করে দেশটির সরকারি এই সংস্থাটি। এমন খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, চীনের ৫০ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের ওজন মাত্রাতিরিক্ত। এদের মধ্যে ১৬ দশমিক ৪ শতাংশই স্থূলতা সমস্যায় ভুগছেন।

বিশেষজ্ঞদের মতে, অতিরিক্ত ওজনের কারণে মানুষের হৃদরোগ, স্ট্রোক ও ডায়াবেটিসের মতো রোগের সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যায়। এছাড়া করোনা (কোভিড-১৯) মহামারীর কারণে বিষয়টি নতুন করে আলোচনায় এসেছে। কারণ, স্থূল শরীরের মানুষদের মধ্যে করোনাজনিত শারীরিক জটিলতা বা মৃত্যুহার বেশি দেখা গেছে।

এনএইচসি জানায়, জনগণের মধ্যে স্থূলতা সমস্যা বেড়ে যাওয়ার কারণ শারীরিক পরিশ্রম কমে যাওয়া। বর্তমানে দেশটিতে প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে এক-চতুর্থাংশেরও কম সপ্তাহে অন্তত একদিন ব্যায়াম করে। এছাড়া বেশি করে মাংস খাওয়া এবং ফলমূল খাওয়া কমিয়ে দেয়া ওজন বৃদ্ধির অন্যতম প্রধান কারণ বলেও জানানো হয়।

চীনের পুষ্টিবিদ ওয়াং ড্যান জানান, দেশের অনেক প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ এখন ব্যায়াম করেন খুবই সামান্য, তাদের ওপর চাপ অনেক বেশি এবং কাজের সূচি একেবারেই অস্বাস্থ্যকর।

প্রসঙ্গত, দেড় যুগ আগেও চীনে অতিরিক্ত ওজন সমস্যা এতটা প্রকট আকারের ছিলো না। ২০০২ সালে দেশটিতে ২৯ শতাংশ মানুষ মাত্রাতিরিক্ত ওজন সমস্যায় ভুগছিলেন। যা বিগত কয়েক বছরের ব্যবধানে অর্ধের দাঁড়িয়েছে।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

অতিরিক্ত ওজন সমস্যা চীন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0996 seconds.