• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৭ ডিসেম্বর ২০২০ ১৭:৪৬:২৯
  • ২৭ ডিসেম্বর ২০২০ ১৭:৪৬:২৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ঘরে এয়ার ফ্রেশনার ব্যবহার কতটা নিরাপদ?

ছবি : প্রতিকী

ঘরে অনেক সময়ই নানা কারণে দুর্গন্ধ ছড়ায়। আর সেই দুর্গন্ধ তাড়াতে অনেকেই এয়ার ফ্রেশনার ব্যবহার করেন। আবার অনেকেই আছেন, যারা ঘরের বাতাসকে সুগন্ধযুক্ত করতেও এটি ব্যবহার করেন। এতে করে ঘর সুবাসিত হলেও এয়ার ফ্রেশনার মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য কতটা নিরাপদ?

কারণ এয়ার ফ্রেশনারের মধ্যে থাকে নানা রাসায়নিক উপাদান। যা শরীরের জন্য ক্ষতিকারক। ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাস্থ্য ও পরিবেশ বিশেষজ্ঞদের করা গবেষণায় এমন তথ্য উঠে আসে। এমন খবর প্রকাশ করেছে সংবাদমাধ্যম নিউজ এইট্টিন।

বিশেষজ্ঞরা জানান, সুগন্ধি জাতীয় বিভিন্ন সামগ্রী যেমন- এয়ার ফ্রেশনার, সেন্টেড ক্যান্ডল এবং কসমেটিক ব্যবহার করা হয়। আর এসব রাসায়নিকের মধ্যে থ্যালেট রয়েছে। যা প্লাস্টিকের বোতল এবং বক্স তৈরির কাজে ব্যহৃত হয়। আর এই রাসায়নিক মানুষের হরমোনের ক্ষতি করে।

গবেষণায় দেখা গেছে, ঘরের ভেতরে রুম ফ্রেশনার স্প্রে করলে তা বিক্রিয়া দ্বারা বিভাজিত হয়ে ক্ষতিকর যৌগে পরিণত হয়। তবে এয়ার ফ্রেশনার ব্যবহার একেবারেই বন্ধ করে দেয়ার কথা বলছেন না গবেষকরা। এক্ষেত্রে অবশ্যই সতর্কতা অবলম্বন করতে বলেন তারা।

সতর্কতা সমূহ :

১. স্প্রে ব্যবহারের সময় অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। তা না হলে বিষাক্ত বাতাস ফুসফুসের ক্ষতি করতে পারে।

২. বাড়িতে বয়স্ক বা শিশুরা থাকলে এয়ার ফ্রেশনার যতো কম পারবেন ব্যবহার করুন। এক্ষেত্রে প্রয়োজনে দরজা-জানালা খুলে দিন।

৩. হার্টের সমস্যা অথবা শ্বাসকষ্ট থাকলেও এয়ার ফ্রেশনার ব্যবহার না করাই উচিৎ হবে বলে মনে করেন চিকিৎসকরা।

৪. এছাড়া হালকা সুগন্ধের এয়ার ফ্রেশনার ব্যবহার করা উত্তম। এতে শ্বাসযন্ত্রের উপর চাপ কমবে।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1022 seconds.