• বিদেশ ডেস্ক
  • ০১ জানুয়ারি ২০২১ ১৯:১২:৩৮
  • ০১ জানুয়ারি ২০২১ ১৯:১২:৩৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

সোলেইমানিকে হত্যায় জড়িত জিফোরএস : ইরান

ছবি : সংগৃহীত

ইরাকে গত বছর ইরানি জেনারেল কাসেম সোলেইমানি হত্যা করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। তবে এই হত্যাকাণ্ডে ব্রিটেনের নিরাপত্তা কোম্পানি জিফোরএস ও জার্মানিতে অবস্থিত মার্কিন বিমান ঘাঁটি জড়িত বলে দাবি করেছে ইরান। সোলেইমানিকে হত্যার এক বছর পর এই দাবি করলো ইরান।

তেহরানের প্রসিকিউটর আলি আলকাসিমের গত বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি করেছেন। এমন খবর প্রকাশ করেছে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা।

এ সময় আলি আলকাসিমের দাবি করেন, সোলেইমানি হত্যায় লন্ডনভিত্তিক নিরাপত্তা সেবা প্রদানকারী কোম্পানি জিফোরএস’র ভূমিকা রয়েছে। জেনারেল সোলেইমানি ও তার সঙ্গীরা বিমানবন্দরে প্রবেশের পরপরই জিফোরএস’র এজেন্টরা সন্ত্রাসীদের কাছে তথ্য পাঠিয়েছিল। তবে দাবির পক্ষে কোনো প্রমাণ দেখাননি তিনি।

তিনি আরো বলেন, মার্কিন বাহিনীকে ড্রোনটি পরিচালনার প্রতিবেদন ও উড্ডয়নের তথ্য দিয়েছিল জার্মানির একটি মার্কিন বিমান ঘাঁটি। সোলেইমানি হত্যায় যুক্তরাষ্ট্র দক্ষিণ জার্মানির রামস্টেইন বিমান ঘাঁটি ব্যবহার করেছে এমন দাবি এর আগেও করেছে ইরান।

আলকাসেমি আরো বলেন, ইরান আইনি পদ্ধতিতে সোলেইমানি হত্যার নির্দেশ ও সংঘটনে জড়িতদের খোঁজ করছে। এক্ষেত্রে ইন্টারপোলের সহযোগিতাও নেয়া হচ্ছে। অপরাধীদের মধ্যে ৪৫ মার্কিন নাগরিক রয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে কাসেম সোলেইমানি হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা কথা অস্বীকার করেছে জিফোরএস। লিখিত বিবৃতিতে জিফোরএস জানায়, সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন জল্পনার প্রতিক্রিয়ায় আমরা পরিষ্কার জানাচ্ছি যে, ২০২০ সালের ৩ জানুয়ারি কাসেম সোলেইমানি ও আবু-মাহদি আল-মুহান্দিসের ওপর হামলার ঘটনায় জিফোরএস’র কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1287 seconds.