• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৫ জানুয়ারি ২০২১ ১১:৪৬:০১
  • ০৫ জানুয়ারি ২০২১ ১৬:২০:১৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

মধ্য ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত লকডাউনে যুক্তরাজ্য

ছবি : সংগৃহীত

ভ্যাকসিন দেয়া শুরু হলেও যুক্তরাজ্যে লাগাম টানা যাচ্ছে না করোনাভাইরাসের সংক্রমণের। সাম্প্রতিক সময়ের প্রাণঘাতী এ ভাইরাসটির সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রেক্ষিতে নতুন করে সেখানে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

স্থানীয় সময় গতকাল ৪ জানুয়ারি, সোমবার জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে বুধবার থেকে লকডাউনের ঘোষণা দেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। তিনি জানান, ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত চলবে এই লকডাউন।

জরুরি প্রয়োজন ছাড়া নাগরিকদের বাড়ির বাইরে হতে নিষেধ করে জনসন বলেন, ‘নতুন ধরন শনাক্তের পর করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে।’

সকলকে এক হয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘করোনা মহামারী শুরু হওয়ার পর থেকে এবার আমাদের হাসপাতালগুলোর উপর সবচেয়ে বেশি চাপ পড়ছে ‘

বিশ্বের অনেক দেশই সংক্রমণ রুখতে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘পরিস্থিতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে ভাইরাস মোকাবিলায় আমাদেরও একসঙ্গে কাজ করতে হবে। তাই এবার কড়া লকডাউন করা হচ্ছে। যাতে এই নতুন ভাইরাস স্ট্রেনটি নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।’

সরকারের পক্ষ থেকে ফের সবাইকে নিজ বাসস্থানে থাকারও আহ্বান জানান বরিস জনসন।

এদিন তিনি সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে মঙ্গলবার থেকে দূরপাঠের মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম চালানোর কথাও জানান। এসময় মার্চের আগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সম্ভাবনা নেই বলেও জানান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।

জনসন বলেন, ‘যদি করোনায় মৃত্যুর হার কমে আসতে শুরু করে, টিকা ঠিক মতো কাজ করে, তাহলেই স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত আসবে।’

টানা প্রায় ৭ দিন ধরে যুক্তরাজ্যজুড়ে ৫০ হাজারের বেশি মানুষের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার’র তথ্য মতে, আজ ৫ জানুয়ারি, মঙ্গলবার বেলা পৌনে ১২টা পর্যন্ত দেশটিতে মোট ২৭ লাখ ১৩ হাজার ৫৬৩ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ৭৫ হাজার ৪৩১ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। চিকিৎসাধীন রোগীদের মধ্যে ১ হাজার ৮৪৭ জনের অবস্থা গুরুতর।

বাংলা/এসএ/

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0909 seconds.