• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০৯ জানুয়ারি ২০২১ ১৪:৫২:৩১
  • ০৯ জানুয়ারি ২০২১ ১৪:৫২:৩১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

‘তাপস মেয়র পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন’

সাঈদ খোকন। ছবি : সংগৃহীত

ব্যরিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন ডিএসসিসি’র সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন। এছাড়াও অর্থের অভাবে ডিএসসিসি’র গরীব কর্মচারীরা মাসের পর মাস বেতন পাচ্ছেন না বলেও জানিয়েছেন তিনি।

ডিএসসিসি কর্তৃক অবৈধ দোকান উচ্ছেদে ক্ষতিপূরণ ও পুর্নবাসনের দাবিতে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের মানববন্ধনে অংশ নিয়ে এই মন্তব্য করেন সাঈদ খোকন। ৯ জানুয়ারি, শনিবার সকালে হাইকোর্ট এলাকায় এই মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়।

 এ সময় সাঈদ খোকন বলেন, দক্ষিণ সিটির বর্তমান মেয়র ব্যরিস্টার ফজলে নূর তাপস তার পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন। মেয়র তাপস দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই দুর্নীতির বিরুদ্ধে গলাবাজি করছেন। রাঘব বোয়ালদের মুখে চুনপুটির গল্প মানায় না। দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়তে হলে সর্বপ্রথম নিজেকে দুর্নীতিমুক্ত হতে হবে।

তিনি আরো বলেন, অর্থের অভাবে ডিএসসিসি’র গরীব কর্মচারীরা মাসের পর মাস বেতন পাচ্ছেন না। ডিএসসিসি’র বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প অর্থের অভাবে বন্ধ হয়ে গেছে। এ ধরনের কর্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে মেয়র তাপস সিটি করপোরেশন আইন ২০০৯ ২য় ভাগের ২য় অধ্যায়ের অনুচ্ছেদ ৯ (২) (জ) অনুযায়ী মেয়র পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন।

সাঈদ খোকন বলেন, ফুলবাড়িয়াসহ গুলিস্তান এলাকার বিভিন্ন দোকানদারদের বৈধতা দিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করার সুযোগ করে দেয়াই ছিল আমার লক্ষ্য। ফুলবাড়িয়া মার্কেটে যে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে, এটা সম্পূর্ণ অবৈধ। কারণ আদালত কর্তৃক নির্দেশিত হয়ে, ব্যবসায়ীদের বৈধকরণের আবেদন নিষ্পত্তির লক্ষ্যে আমরা করপোরেশনের বোর্ড সভায় সর্বসম্মতিক্রমে আলোচিত মার্কেটগুলোর নকশা সংশোধন, বকেয়া ভাড়া আদায় সাপেক্ষে বৈধ ব্যবসা পরিচালনার অনুমতি প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি।

তিনি আরো বলেন, ওই সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক ডিএসসিসি’র প্রকৌশল বিভাগ নকশা সংশোধন করে এবং রাজস্ব বিভাগ সাত-আট বছরের বকেয়া ভাড়া আদায় করে ব্যবসায়ীদের বৈধভাবে ব্যবসা পরিচালনা করার অনুমতি প্রদান করে।

সাবেক মেয়র আরো বলেন, এখন বিনা নোটিশে বুলডোজার দিয়ে হাজার হাজার বৈধ দোকান গুড়িয়ে দেয়া হলো। আমি ঢাকা দক্ষিণ সিটির সাবেক মেয়র হিসেবে এই অবৈধ উচ্ছেদের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0823 seconds.