• বিদেশ ডেস্ক
  • ১০ জানুয়ারি ২০২১ ১২:৩৪:১৬
  • ১০ জানুয়ারি ২০২১ ১২:৩৪:১৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

মধ্যরাতে হঠাৎ বিদ্যুৎহীন গোটা পাকিস্তান

ছবি : সংগৃহীত

ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে পাকিস্তান। গতকাল ৯ জানুয়ারি, শনিবার স্থানীয় সময় সাড়ে ১১টার দিকে হঠাৎই দেশটির বেশিরভাগ স্থানে একসাথে বিদ্যুৎ চলে যায়।

জাতীয় গ্রিডের এই বিপর্যয়ের কারণে করাচি, রাওয়ালপিণ্ডি, লাহোর, ইসলামাবাদ, মুলতান, পেশোয়ার, কোয়েটা, ফয়সালাবাদ, মুজফফরগড়, নারোয়াল, ভাক্কার, কবিরওয়ালা, খানেওয়ালা, ভাওয়ালপুর এবং সুক্কুরসহ অধিকাংশ শহর ব্ল্যাকআউটের মুখে পড়ে।

পাক-অধিকৃত কাশ্মীরেও এই বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের ধাক্কা লাগে। সেখানেও নেমে আসে অন্ধকার। সেইসাথে দেশটির বৃহত্তম বেলুচিস্তান প্রদেশের ২৯টি জেলাও বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়ে। এই বিপর্যয়ের জেরে মোবাইল ও ইন্টারনেট সব সব ধরনের জরুরি পরিষেবা স্তব্ধ হয়ে পড়েছে বলে দ্য ডনসহ দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে। এমনকি দেশটির প্রধানতম বিমানবন্দর এমনকি জিন্নাহ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরও বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়ে।

বিদ্যুৎমন্ত্রী ওমর আয়ুব খান এক টুইট বার্তায় জানান, ‘হঠাৎ বিদ্যুৎ বণ্টন পরিষেবার ফ্রিকোয়েন্সি একধাক্কায় পঞ্চাশ থেকে শূন্যে পড়ে যাওয়ায় অন্ধকারে ডুবে গেছে পাকিস্তান।’

ইসলামাবাদের ডেপুটি কমিশনার হামজা শফাকত টুইটে জানান, ন্যাশনাল ট্রান্সমিশন ডেসপ্যাচ কোম্পানির (এনটিডিসি) বিদ্যুৎ সংযোগ ব্যবস্থায় প্রযুক্তিগত ত্রুটির কারণে এই বিপর্যয়ের মুখে পড়তে হয়েছে। এই সমস্যা সমাধানে বেশ কিছু সময় লাগতে পারে।

পরে কয়েক ঘণ্টার পর ভোরের দিক থেকে বিভিন্ন শহরে ধাপে ধাপে বিদ্যুৎ ফিরতে শুরু করে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমগুলো। তবে এখনো পরিস্থিতি পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়ে উঠেনি।

এর আগে ন্যাশনাল গ্রিডের উৎপাদন থমকে যাওয়ায় ২০১৫ সালেও ব্ল্যাকআউটের মুখে পড়েছিল পাকিস্তান। তখন দেশটির ৮০ ভাগ অঞ্চল বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছিল।

বাংলা/এসএ/

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0946 seconds.