• ১৭ জানুয়ারি ২০২১ ১২:৪৪:১১
  • ১৭ জানুয়ারি ২০২১ ১২:৪৪:১১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

কথা কাটাকাটির জেরে খুলনায় চাচাতো ভাইকে কুপিয়ে হত্যা

ছবি : প্রতীকী


খুলনা প্রতিনিধি :


ভিটেমাটি ও জমিজমা ভাগাভাগি নিয়ে সামান্য কথাকাটি হয় চাচাতো ভাই মাসিকুল মোল্যার সাথে। তাতে ক্ষিপ্ত হয়ে আপন চাচাতো ভাই মো. মহিদুল মোল্যার ঘাড়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাত করে সে। গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে নেবার পথেই মারা যান মহিদুল।

গতকাল ১৬ জানুয়ারি, শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে খুলনার রূপসা উপজেলার ঘাটভোগ ইউনিয়নের আনন্দনগর গ্রামে ঘটেছে ঘটনাটি। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশের সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

নিহত মোঃ মহিদুল ইসলাম মোল্যা রূপসার আনন্দনগর গ্রামের মোঃ ছহির উদ্দিন মোল্যার ছেলে। হত্যাকাণ্ডের পর থেকে পলাতক রয়েছে অভিযুক্ত মোঃ মাসিকুল মোল্লা (২৩)। সে একই এলাকার মোঃ মিজানুর মোল্যার ছেলে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, শনিবার দুপুরে রূপসা উপজেলার ঘাটভোগ ইউনিয়নের আনন্দনগর গ্রামের হাইস্কুলের পাশে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে মহিদুল মোল্যার সাথে তার আপন চাচাতো ভাই মাসিকুল মোল্যার সাথে কথা কাটাকাটি ও বাক-বিতণ্ডার ঘটনা ঘটে।

এ বিরোধের জের ধরে মাসিকুল মোল্যা হঠাৎ ঘরে গিয়ে ধারালো অস্ত্র নিয়ে এসে চাচাতো ভাই মোঃ মহিদুল মোল্যার (৪০) ঘাড়ে কোপ মারে। এতে ঘটনাস্থলেই ঢলে পড়েন মহিদুল। গুরুতর অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মহিদুল মোল্যার মৃত্যু হয়।

দুপুর আড়াইটার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পৌঁছালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে রক্তাক্ত দা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রূপসার থানার ওসি তদন্ত মোঃ ইব্রাহিম হোসেন সোহেল জানিয়েছেন, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরধরে চাচাতো ভাই মাসিকুল মোল্যা কুপিয়ে হত্যা করেছে মহিদুল মোল্যাকে। ঘটনার পর পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে রয়েছেন। ঘাতক মাসিকুল মোল্যাকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

নিহতের লাশ খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

বাংলা/এমএইচ/এসএ/

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1061 seconds.