• ২০ জানুয়ারি ২০২১ ১০:০১:৫২
  • ২০ জানুয়ারি ২০২১ ১০:০১:৫২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় স্ত্রীকে হত্যা, স্বামীর ফাঁসির আদেশ

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত বকুল মিয়া। ছবি : বাংলা


কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি :


আপন বড় ভাইয়ের স্ত্রীর সাথে পরকীয়া প্রেমে বাধা দেওয়ার জেরে নিজ স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামী বকুল মিয়াকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

গতকাল ১৯ জানুয়ারি, মঙ্গলবার  দুপুরে কুড়িগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ আব্দুল মান্নান এ আদেশ দেন। পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) আব্রাহাম লিংকন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, জেলার রাজিবপুর উপজেলার চরসাজাই নয়াপাড়া গ্রামের বকুল মিয়া তার আপন বড় ভাইয়ের বউয়ের সাথে পরকীয়া প্রেমে আসক্ত ছিল। এতে তার স্ত্রী শাহীনা বেগম বাধা দেন। 

এর জেরে ২০০৭ সালের ২ ডিসেম্বর বকুল মিয়া স্ত্রী শাহীনা বেগমকে গলা টিপে হত্যা করে মরদেহ ফাঁস দিয়ে ঝুলিয়ে রাখে এবং আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে শাহীনার মৃত্যু শ্বাসরোধে হত্যা বলে প্রতীয়মান হওয়ায় শাহীনার বাবা শামছুল হক বাদী হয়ে বকুল মিয়া ও তার ভাবী নুরুন্নাহারকে আসামি করে মামলা করেন।

দীর্ঘ ১৩ বছর মামলার শুনানি ও সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে মঙ্গলবার দুপুরে আদালত বকুল মিয়াকে দোষী সাবস্ত করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন। অপর আসামি ও বকুল মিয়ার বড় ভাইয়ের স্ত্রী নুরুন্নাহারকে বেকসুর খালাস দেন আদালত।

মামলায় সরকার পক্ষে আইনজীবী ছিলেন পিপি আব্রাহাম লিংকন এবং আসামি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন ফখরুল ইসলাম।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ১২ জানুয়ারি মাকে হত্যার দায়ে মন্তাজুল আলম (৩৬)  নামে এক যুবককে ফাঁসির আদেশ দেন আদালত। মন্তাজুলের বাড়ি রাজারহাট উপজেলার উমরপান্থাবাড়ি (সাতভিটা) গ্রামে।

বাংলা/সিকেএস/এসএ/

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0925 seconds.