• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৮:২০:৫৬
  • ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৮:২০:৫৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

আলোর পাখি ফাউন্ডেশনের অন্যরকম শহীদ দিবস পালন

ছবি : সংগৃহীত

বিশেষ শিশুদের নিয়ে কাজ করছে পুরনো ঢাকার সূত্রাপুরে অবস্থিত আলোর পাখি ফাউন্ডেশন। 

শহীদ  দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে  বাচ্চাদের ফ্রি ডেন্টাল চেক আপের আয়োজন করে প্রতিষ্ঠানটি । 

সকাল ১০ টায় প্রভাত ফেরির মাধ্যমে অনুষ্ঠানের যাত্রা শুরু হয়। প্রধান অতিথি , ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান , ভাইস চেয়ারম্যান , ট্রেজারার সহ  প্রায় অর্ধ শতাধিক বিশেষ শিশু  এবং তাঁদের অভিভাবকেরা এতে অংশ নেন । 

প্রভাত ফেরি গিয়ে উপস্থিত হয় মুল ভেন্যু  ঢাকা কেন্দ্র, ফরাশগঞ্জ , মাওলা বখশ দাতব্য চক্ষু হাসপাতালে । 

এরপর শুরু হয় মুল আয়োজন । 

অনুষ্ঠানে বিশেষ শিশুদের শুভ কামনা জানান প্রধান অতিথি জনাব ওমর ফারুক চৌধুরী কেরিয়ার ট্রেইনার এবং সিইও  বিএল একাডেমি বাংলাদেশ। 

বিশেষ অতিথি ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ্ববিদ্যালয়ের মুখ এবং দন্ত সার্জন ডাঃ মাহমুদ সৈকত । 

আরও উপস্থিত ছিলেন আলোর পাখি ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ঝুমনা মল্লিক ঝুমি , ভাইস চেয়ার ম্যান এবং প্রজেক্ট পরিচালক জনাব মাহবুব আলম , ট্রেজারার মোঃ ফরহাদ খান । 

ফুলেল শুভেচ্ছা জানাবার পর প্রধান অতিথির বক্তব্যে জনাব ওমর ফারুক বলেন , একটি আলোর কনা পেলে যেমন লক্ষ প্রদীপ জ্বলে, তেমনি আলোর পাখি ফাউন্ডেশন বিশেষ বাচ্চাদের মাঝে আলো দেখিয়ে যাবে। তিনি আলোর পাখিদের জন্য এমন আয়োজনে উপস্থিত থাকতে পেরে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন । 

এরপর অতিথিদের ক্রেস্ট দিয়ে বরন করে নেয়া হয় । 

মাতৃভাষা দিবসে ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যানের মা বাবা এবং ট্রেজারার ফরহাদ খানের আম্মাকে বিশেষ ভাবে সম্মানিত করা হয়। 

এই বিষয়ে ঝুমনা মল্লিক জানান - আমাদের এই অভিভাবকেরা না থাকলে আমরা কিছুতেই এগুতে পারতাম না । তাই আজ বিশেষ দিনে উনাদের সম্মানিত করলাম । 

এমন দিনে ডেন্টাল চেক আপ ? 
এই প্রশ্নের জবাবে তিনি জানালেন - একজন বিশেষ সন্তানের মা হিসেবে আমি জানি বিশেষ  বাচ্চাকে ডাক্তার দেখানো কত ঝামেলার । বাচ্চা হাইপার , যাবে না । গেলে অপেক্ষা করবে না । অস্থিরতার কারণে বাবা মা ও চট করে সাহস করেন না । অথচ বাচ্চার দাঁতের সমস্যা অনেক বেশি হয় । কারণ এরা চকলেট মিষ্টি খেতে পছন্দ করে কিন্তু ব্রাশ করতে পছন্দ করে না । তাই আমরা ভেবেছি ওদের কাছেই ডাক্তার চলে এলো আর আমরা সকলে মিলে সাহায্য করলে বাচ্চার দাঁতের চেক আপটা হয়ে গেল । 

আজ বিশেষ দিন , বিশেষ দিনে বিশেষ সন্তানেরা এমন সার্ভিস পেয়ে উপকৃত হলেই আমাদের সার্থকতা । 

তারপর বাচ্চাদের নিয়ে কেক কাটার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বের সুচনা করা হয়। 
ডেন্টাল চেক আপ শুরু হয়। বিশেষ শিশুদের বাবা মায়েরা এই কার্যক্রমে বেশ সন্তোষ প্রকাশ করেন । 

কি করে শিশুদের অভ্যাসের পরিবর্তন করতে হবে এই নিয়ে ডাক্তার সৈকত অভিভাবকদের পরামর্শ দেন । 

অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় ।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

আলোর পাখি ফাউন্ডেশন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1017 seconds.