• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৯:২৬:৪৩
  • ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৯:২৭:৫০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

সংঘর্ষের আশঙ্কায় বসুরহাটে ১৪৪ ধারা

ছবি : প্রতীকী

সংঘর্ষের আশঙ্কায় নোয়াখালীর আলোচিত বসুরহাট পৌরসভায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে উপজেলা প্রশাসন। একই স্থানে আওয়ামী লীগের বিবাদমান দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি ঘোষণার প্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

গতকাল ২১ ফেব্রুয়ারি, রবিবার রাত ১১টার দিকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জিয়াউল হক মীরের নির্দেশনা পাওয়ার পরপরই বসুরহাট পৌর এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

ইউএনও স্বাক্ষরিত এক আদেশে বলা হয়, সোমবার সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত পৌরসভার সর্বত্র ১৪৪ ধারা জারি থাকবে। সব ধরনের সভা-সমাবেশে থাকবে নিষেধাজ্ঞা।

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি, বৃহস্পতিবার বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হন স্থানীয় সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরদিন তার মৃত্যু হয়।

মুজাক্কিরকে  নিজেদের কর্মী দাবি করে কাদের মির্জার অনুসারীরা প্রতিপক্ষের লোকজনকে গ্রেপ্তারের দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করেন। এ হত্যার বিচার দাবিতে তাদের পক্ষ থেকে বসুরহাট রূপালী চত্বরে আজ ২২ ফেব্রুয়ারি, সোমবার শোক ও প্রতিবাদ সভার কর্মসূচির ঘোষণা করা হয়।

একই স্থানে বিকাল ৩টায় সমাবেশের ঘোষণা দেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল। এরই প্রেক্ষিতে সংঘর্ষের আশঙ্কায় উপজেলা প্রশাসন ১৪৪ ধারা জারি করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনি বলেন, ‘দুই পক্ষ বসুরহাটে একই স্থানে পাল্টাপাল্টি সমাবেশ ডাকায় সমগ্র বসুরহাট পৌর এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এ সময় সব ধরনের সভা সমাবেশ ও মিছিল নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

কোনো স্থানে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি যেন অবনতি না ঘটে সেজন্য অতিরিক্ত পুলিশ ও ডিবি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

বাংলা/এসএ/

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0792 seconds.