• বিদেশ ডেস্ক
  • ০১ এপ্রিল ২০২১ ১০:৩৫:৪৪
  • ০১ এপ্রিল ২০২১ ১০:৩৫:৪৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

আবারো কড়াকড়ি ফ্রান্সে, বন্ধ হচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

ছবি : সংগৃহীত

করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আরও কঠোর হচ্ছে ফ্রান্স। দেশজুড়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার বাধ্যবাধকতার পাশাপাশি বিধিনিষেধও বাড়ানো হয়েছে। বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

দেশটির প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ স্থানীয় সময় বুধবার টেলিভিশনে দেওয়া ভাষণে এই ঘোষণা দেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি।

প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ দেশের পরিস্থিতি ‘নাজুক’ উল্লেখ করে এপ্রিল মাসকে গুরুত্বপূর্ণ সময় হিসেবে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, এখনই পদক্ষেপ না নিলে আমরা নিয়ন্ত্রণ হারাব। আগামী সপ্তাহ থেকে স্কুল বন্ধ থাকবে। শিক্ষা কার্যক্রম চলবে অনলাইন মাধ্যমে।

গত মাসের শেষের দিকে ফ্রান্সের বেশ কিছু অঞ্চলে ‘লকডাউন’ ঘোষণা করা হয়। অন্যান্য অঞ্চলেও ‘লকডাউন’ বাড়ানোর পরিকল্পনা চলছে। শনিবার থেকে দেশে নিত্যপণ্য ছাড়া সব ধরনের দোকানপাট বন্ধ রাখা হবে। উপযুক্ত কারণ ছাড়া ৬ মাইলের বেশি ভ্রমণ করা যাবে না।

৪৩ বছর বয়সী প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ বলেন, একহাতে ভ্যাকসিন প্রয়োগ কার্যক্রম তদারকি আরেক হাতে করোনার বিস্তার ঠেকানো, এটা চ্যালেঞ্জিং।

তিনি জানান, করোনার সংক্রমণ বাড়ার প্রেক্ষাপটে সম্প্রতি ১৯টি জেলায় যে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে, তা দেশজুড়ে প্রয়োগ করা হবে। প্রত্যেককে একে অন্যের থেকে দূরত্ব মানতে হবে। মানুষ যেখানে লকডাউনের সময়টা কাটাতে চায় সেখানে তাদের যেতে সময় দেওয়া হবে।

সর্বশেষ বুধবার পাওয়া তথ্যানুযায়ী, নতুন করে ৫৯ হাজার ৩৮ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে ফ্রান্সে করোনা শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় ৪০ লাখ ৬০ হাজারে। এই ভাইরাসে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৯৫ হাজার ৪৯৫ জনের।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

কড়াকড়ি ফ্রান্স

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1921 seconds.