• বিনোদন প্রতিবেদক
  • ০৪ এপ্রিল ২০২১ ১৬:৩৭:১৬
  • ০৪ এপ্রিল ২০২১ ১৬:৩৭:১৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

তন্বীর উপস্থাপনায় দীপ্ত কৃষি মেলা

ছবি: সংগৃহীত

এসিআই দীপ্ত কৃষি অ্যাওয়ার্ড ২০২০ উপলক্ষে আয়োজন করা হয় দীপ্ত কৃষি মেলার। ২ এপ্রিল,শুক্রবার সকালের এই আয়োজনে উপস্থাপনায় ছিলেন ফারজানা রহমান তন্বী। দীপ্ত টিভির অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজ থেকে মেলাটি দর্শক-শ্রোতাদের জন্য সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। 

মেলায় দেশের স্বনামধন্য কোম্পানি এসিআই, বেবিলন এগ্রো, কাজী ফার্ম, ইস্পাহানী এগ্রোর স্টল প্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছিল। মেলার দর্শনার্থীদের জন্য মঞ্চে ছিল গানের আয়োজন, যা দর্শকরা দারুণ উপভোগ করেন।

তন্বীর বেড়ে ওঠা নরসিংদীর শিবপুর উপজেলায়। বাবা হাফিকজুর রহমান অবসরপ্রাপ্ত সরকারী কর্মকর্তা, মা মোকারিমা খানম ও বর্তমানে অবসরপ্রাপ্ত। এলাকায় স্কুল কলেজের গন্ডি পেরিয়ে ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি হন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে কৃষি অর্থনীতি ও গ্রামীণ সমাজবিজ্ঞান বিভাগে। মাস্টাসও করেছেন একই বিষয়ের উপর। মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিকে পেয়েছিলেন গোল্ডেন এ প্লাস। এ পর্যন্ত আসতে সবচেয়ে অনুপ্রেরণা দিয়েছেন তার মা। তবে জীবনের প্রথম শুরুটা হয়েছিল বাবার দেয়া ছোট হারমনিয়মে হাতটা রেখে।  

ফারজানা রহমান তন্বী ২০১৭ সালে আরটিভি-ডাবর ভাটিকা ক্যাম্পাস স্টারে অংশগ্রহণ করে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ক্যাম্পাস স্টার হন। তারপর ভাবছিলেন কিছু একটা করবেন। যেহেতু আমার ব্যাকগ্রাউন্ড কৃষি। আমি একজন কৃষিবিদ। তাই একটা কৃষি প্রোগ্রাম দিয়ে শুরু করি। তন্বী বেসরকারি দীপ্ত টিভিতে জনপ্রিয় ‘দীপ্ত কৃষি’ বিষয়ক অনুষ্ঠানের উপস্থাপক। এই অনুষ্ঠানের সুবাদে ছুটে চলা দেশের আনাচে কানাচে। তবে এখনও নারীদের উপস্হিতি অনেক কম। আর এতদিন যা পড়েছি মাঠে গিয়ে সেগুলা দেখছি। ভীষণ উপভোগ করি। তন্বী বর্তমানে দীপ্ত ‘কৃষি জিজ্ঞাসা’ অনুষ্ঠানের সঞ্চালক হিসাবে আছেন।
 
উপস্থাপনা প্রসঙ্গে তন্বী বলেন, ‘একজন কৃষিবিদ হিসেবে কৃষি নিয়ে কথা বলতে অথবা কৃষির সাথে সম্পৃক্ত যে কোন কিছুই আমাকে আনন্দ দেয়, ভালো বোধ করায়। দীপ্ত কৃষির সাথে আমি আছি ২০১৮ সাল থেকে। প্রথমবারের মতো এতো বড় পরিসরে আয়োজনের একটা অংশে অংশগ্রহণ করতে পেরে আমি আনন্দিত এবং গর্বিত। ভবিষ্যতেও কৃষি নিয়েই থাকতে চাই। কৃষি বান্ধব সরকারের উৎসাহ আর সময়োপযোগী সিন্ধান্তে দুর্বার গতিতে আমাদের দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এগুচ্ছে আমদের কৃষি। এ অঅগ্রযাত্রার সাক্ষী হতে পেরে নিজেকে সম্মানিত বোধ করছি।’

উল্লেখ্য, বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন দীপ্ত টিভি ও এসিআই যৌথভাবে কৃষিকাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে উৎসাহ ও সম্মাননা জানাতে প্রথমবারের মতো এবার কৃষি পদক দিয়েছে। কৃষি উদ্যোক্তা, উদ্ভাবক, গবেষক, কৃষক ও খামারিদের মোট ১০টি ক্যাটাগরিতে এই পুরস্কার দেয়া হয়। 
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক। বিশেষ অতিথি ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

এতে অন্যদের মধ্যে দীপ্ত টিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী জাহেদুল হাসান ও এসিআই এগ্রিবিজনেসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফা হ আনসারী বক্তব্য রাখেন।

দেশের জনপ্রিয় এই টিভি চ্যানেলে ২০১৬ সালের ৭ জুন থেকে প্রচার হচ্ছে ‘দীপ্ত কৃষি’ নামের অনুষ্ঠান। কৃষির আদি ইতিহাস তুলে ধরাই এ অনুষ্ঠানের উদ্দেশ্য। ধারাবাহিক পথচলায় গত বছর এক হাজার পর্ব প্রচারে মাইলফলক ছুঁয়েছে ‘দীপ্ত কৃষি’।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1267 seconds.