• বাংলা ডেস্ক
  • ২৬ এপ্রিল ২০২১ ১৫:২৭:৫৫
  • ২৬ এপ্রিল ২০২১ ১৫:২৭:৫৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

সুপেয় পানি নিয়ে উপকূলের ঘরে ঘরে গেলেন এক ব্যাংকার

সুপেয় পানি নিয়ে উপকূলের ঘরে ঘরে গেলেন এক ব্যাংকার

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

সাতক্ষীরার শ্যামনগরে তৃষ্ণার্ত মানুষের মাঝে সুপেয় পানি বিতরণ করেছেন ব্যাংকার বুলবুল আহমেদ। শ্যামনগরে পানির জন্য বিরাজ করছে হাহাকার-গণমাধ্যমে এমন সংবাদ দেখে তৃষ্ণার্ত মানুষের মাঝে সুপেয় পানি নিয়ে হাজির হলেন এই ব্যাংকার।

সোমবার (২৬ এপ্রিল) সকালে জয়াখালী মহাজেরিন স্কুলের সামনে ও পশ্চিম কৈখালী গ্রামের মানুষের মধ্যে বিশুদ্ধ খাবার পানি বিতরণ করা হয়।

প্রায় দুই শতাধিক পরিবারের প্রত্যেককে এক কলস করে পানি বিতরণ করেন বুলবুল আহমেদ। পানি পেয়ে মহাখুশি বোসখালির শামসুন্নাহার, নাজমা খাতুন, মৌসুমী পারভীন, জয়াখালির দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী রেজাউল করিম, মোয়াজ্জিন আবু বকর, আব্দুর রহমানসহ সবাই।

তারা বলেন, 'আজ ক'দিন পানির জন্যি ছটফট করতিছি। একফুটা পানি মিলুতি পারিনি। পকুরির পানি জ্বাল দে খাইছি। সারা গ্রামের মধ্যি কোথাও এট্টু খাবার পানি নি। আজগির এক কলসি পানি পাইছি, সগ্গুলি শান্তিতে খাতি পারবানি।'

পানি বিতরণকালে উপস্থিতসাবেক ছাত্রলীগ নেতা শেখ হাফিজুর রহমান, শেখ আলী মুর্তজা, মনির হোসেন প্রমুখ ।

প্রসঙ্গত, শ্যামনগরের কৈখালি, রমজাননগর, ঈশ্বরীপুর, বুড়িগোয়ালিনী, গাবুরা, পদ্মপুকুরসহ গোটা উপকূলে বিরাজ করছে পানি সংকট। স্থানীয় বেসরকারি সংস্থা লিডার্সের পক্ষ থেকে সুপেয় পানি সংকট নিরসনে কাজ করা হচ্ছে। সংস্থাটি নির্বাহী পরিচালক মোহন কুমার বিশ্বাস জানান, খরতায় খাল-বিল-পুকুর শুকিয়ে গেছে। নলকুপেও উঠছে না ঠিকমত পানি। ভূগর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নেমে এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।পানির জন্য এসব এলাকায়  একপ্রকার হাহাকার অবস্থা। তিনি আরও জানান, সুপার সাইক্লোন আম্পানে উপদ্রুত উপকূলীয় সাতক্ষীরার শ্যামনগরের ক্ষতিগ্রস্থ মানুষ নিরাপদ খাবার পানির দাবিতে সম্প্রতি কয়েক দফা মানববন্ধন, মিছিল ও সমাবেশ করেছে।

সাতক্ষীরা-৪ আস‌নের সংসদ সদস্য এসএম জগলুল হায়দার বলেন, ‘বুড়িগোয়ালিনী এলাকায় খাবার পানির সংকট নিরসনে সেখানে একটি অসমোসিস পানির প্লান্ট স্থাপন করা হয়েছে। তবে অন্যান্য জায়গায় সুপেয় পানির সংকট নিরসনে তিনি উপজেলা প্রশাসনকে সাথে নিয়ে ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছেন।‘

 

 

 

 

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0871 seconds.