• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০৮ জুন ২০২১ ২০:৪৪:১৫
  • ০৮ জুন ২০২১ ২০:৪৪:১৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

কোরবানিতে আলমগীর র‍্যাঞ্চ এর গরু 'ইভ্যালি গরুর হাট' এ

ছবি : সংগৃহীত

আসন্ন ঈদ উল আযহা তথা কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে নিরাপদে ঘরে বসে নির্বিঘ্নে কোরবানির পশু কেনার সুযোগ থাকছে 'ইভ্যালি গরুর হাট' এ। আর দেশের অন্যতম বৃহৎ ও বিশ্বস্ত ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম ইভ্যালি’র এই ভার্চুয়াল হাটে থাকছে দেশের অন্যতম প্রধান গরুর ফার্ম আলমগীর র‍্যাঞ্চ লিমিটেড এর গরু। দেশজুড়ে কোরবানির জন্য স্বাস্থ্যবান ও উন্নত জাতের গরু সরবরাহকারী বিশ্বস্ত ফার্ম আলমগীর র‍্যাঞ্চ এর গরুগুলো খুব সহজেই কেনা যাবে ইভ্যালি থেকে।

মঙ্গলবার (৮ জুন) এলক্ষ্যে ইভ্যালি এবং আলমগীর র‍্যাঞ্চ এর মধ্যে এক সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। ইভ্যালির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী মোহাম্মদ রাসেল এবং আলমগীর র‍্যাঞ্চ লিমিটেডের পরিচালক ও লাবিব গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সুলতানা জাহান, লাবিব ব্রুপের চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন আলমগীরসহ উভয় প্রতিষ্ঠানের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। 

আগামী ঈদ উল আযহায় কোভিড স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রেতার দোরগোড়ায় সহজেই কোরবানির গরু পৌঁছে দিতেই উভয় প্রতিষ্ঠানের এই যুগপত পথচলা বলে প্রতিষ্ঠান দুইটির পক্ষ থেকে জানানো হয়। 

এক যৌথ সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ইভ্যালি থেকে আলমগীর র‍্যাঞ্চ এর গরু কিনলে গ্রাহকের নির্ধারিত স্থানে নির্দিষ্ট সময়ে তা পৌঁছে দিবে ইভ্যালি কর্তৃপক্ষ। আর ‘ইভ্যালি গরুর হাট’ থেকে এখনই গরু কিনলে, কোরবানির আগ পর্যন্ত গরুর যাবতীয় লালন পালনের দায়িত্ব আলমগীর রেঞ্চ-এর। গরু লালন পালনের কোন খরচ গ্রাহককে বহন করতে হবে না। শুধু তাই নয়, এই সময়ের মধ্যে গরুর ওজন বেড়ে গেলেও গ্রাহককে অতিরিক্ত ওজনের জন্য বাড়তি কোন মূল্য পরিশোধ করতে হবে না। পাশাপাশি গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী নিরাপদে কোরবানি ঈদের তিন থেকে চার দিন আগে সুষ্ঠুভাবে কোরবানির গরু গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে। 

এই উদ্যোগকে সময়োপযোগী উল্লেখ করে আলমগীর র‍্যাঞ্চ লিমিটেড এর পরিচালক সুলতানা জাহান বলেন, ইভ্যালি'র মাধ্যমে সারা দেশের মানুষের কাছে আমরা সুস্থ ও নিরাপদ গরু পৌঁছে দিতে চাই। পবিত্র কোরবানির ঈদে সবচেয়ে ভালো গরুই যেন আমাদের দেশের মানুষ কোরবানি করতে পারেন; আমরা এবং ইভ্যালি একসাথে সেই প্রচেষ্টায় নিয়োজিত আছি। 

এবিষয়ে ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী মোহাম্মদ রাসেল বলেন, আমরা খুবই আনন্দিত যে আলমগীর র‍্যাঞ্চ আমাদের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে। এর মধ্যদিয়ে এবারের কোরবানি ঈদে আলমগীর র‍্যাঞ্চ এর পশুগুলো  ইভ্যালি থেকে সহজে কিনতে পারবেন। আশাকরি আমরা বেস্ট কোয়ালিটি সার্ভিস দিতে পারবো।

প্রসঙ্গত, গরুর বিশ্বস্ত ফার্ম আলমগীর র‍্যাঞ্চ, দীর্ঘদিন ধরে উন্নত জাতের ও স্বাস্থ্যবান গরু, সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সাথে সঠিক যত্ন ও পরিচর্যার মাধ্যমে তাদের ক্রেতাদের কাছে গরু সরবরাহের জন্য দেশজুড়ে ব্যাপক সুনাম অর্জন করেছে। আলমগীর র‍্যাঞ্চ তাদের গরুগুলোকে ভেজালহীন, পুষ্টিকর ও নিরাপদ খাবার খাওয়ানোর মাধ্যমে প্রাকৃতিকভাবে বড় করে থাকে। এছাড়া গরুকে সুস্থ-সবল দেখানোর জন্য সব ধরনের অনিরাপদ ঔষধ কিংবা স্টেরয়েড ব্যবহার থেকে বিরত থাকে। ২৪ ঘন্টা গরুর যত্নের জন্য তারা দক্ষ খামারি ও অভিজ্ঞ চিকিৎসকের সার্বক্ষণিক তত্বাবধানে, পরিচ্ছন্ন পরিবেশে পালিত সুস্থ-সবল গরু সরবরাহ করে যা ক্রেতা ও ভোক্তাদের জন্য হালাল ও স্বাস্থ্যকর মাংস নিশ্চিত করে।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে ইভ্যালির চীফ মার্কেটিং অফিসার আরিফ আর হোসেন, চীফ অপারেটিং অফিসার তরিকুল কামরুল এবং হেড অব কমার্শিয়াল সাজ্জাদ আলম উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0795 seconds.