• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০০:৪৭:১৪
  • ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০০:৪৭:১৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

আফগানিস্তানে সরকার ঘোষণা করলো তালেবান

ছবি : সংগৃহীত

মোল্লা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দকে প্রধান করে আফগানিস্তানে অন্তর্বর্তী সরকার ঘোষণা করেছে তালেবান। মঙ্গলবার রাজধানী কাবুলে তালেবানবিরোধী বিক্ষোভে গুলির ঘটনার পর রাতে এই নতুন সরকারের ঘোষণা আসে।

অন্তর্বর্তী সরকার ঘোষণার পাশাপাশি আফগানিস্তানকে একটি 'ইসলামিক এমিরেট' হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন তালেবান যোদ্ধারা।

তালেবানের পক্ষ থেকে বলা হয়, মোল্লা মোহাম্মদ হাসানের নেতৃত্বেই অন্তর্বর্তী সরকার পরিচালিত হবে।

বিবিসি ও রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, তালেবানের সরকারে ভারপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী করা হয়েছে মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই ঘোষিত এক জঙ্গি নেতাকে। হাসান আখুন্দের সঙ্গে উপ-প্রাধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন তালেবানের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মুল্লাহ আব্দুল গনি বারদার।

তালেবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেন, আমরা জানি দেশের জনগণ নতুন সরকারের জন্য অপেক্ষা করছে। এটা পরিপূর্ণ সরকার নয়। পর্যায়ক্রমে সব পক্ষের প্রতিনিধি নিয়ে পরিপূর্ণ সরকার গঠন করা হবে।

তিনি বলেন, নতুন সরকারের প্রথম কাজগুলোর মধ্যে থাকবে অর্থনীতিকে স্থিতিশীল করা, আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পাওয়া এবং দেশটিতে ক্রমবর্ধমান মানবিক সংকট মোকাবিলা করা।

মোল্লা মোহাম্মদ হাসানকে প্রধানমন্ত্রী ছাড়া অন্তর্বর্তী এই সরকারের ভারপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হয়েছেন সেরাজুদ্দিন হাক্কানি। তিনি জঙ্গি-দল হাক্কানি নেটওয়ার্কের প্রধান। গত দু‌ই দশকব্যাপী লড়াইয়ে আফগানিস্তানের ভেতরে অনেকগুলো সন্ত্রাসী হামলার জন্য দায়ী এই হাক্কানি নেটওয়ার্ক।

তালেবানের মন্ত্রিসভায় ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী হয়েছেন মুল্লা ইয়াকুব এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী হয়েছেন আমির খান মুত্তাকি। দ্বিতীয় উপপ্রধানমন্ত্রী হয়েছেন মুল্লা আব্দুস সালাম হানাফি। মুল্লা ইয়াকুব তালেবানের প্রতিষ্ঠাতা এবং সর্বোচ্চ নেতা প্রয়াত মুল্লা ওমরের ছেলে।

এই মন্ত্রিসভায় কেন কোিও নারী প্রতিনিধি নেই, এই প্রশ্নের জবাবে তালেবানের সংস্কৃতি বিষয়ক কমিশনের প্রধান আমানুল্লাহ ওয়াসিক বলেছেন, মন্ত্রিসভার গঠন এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

গত ১৫ আগস্ট একের পর এক শহর নিয়ন্ত্রণে নিয়ে কাবুল দখলের ঘোষণা দেয় তালেবান। এর মাধ্যমেই ক্ষমতায় বসার কথা জানায় তারা। এর আগেই দেশটির প্রধানমন্ত্রী আশরাফ গনি পালিয়ে দেশের বাইরে চলে যান।

সরকার ঘোষণার আগে মঙ্গলবারই আফগানিস্তানে নতুন রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে মোল্লা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দকে মনোনীত করার কথা জানানো হয়।

তালেবানের এক সিনিয়র নেতা দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনালকে বলেন, আমিরুল মুমিনিন শেখ হাইবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা তালেবান নেতা মোল্লা হাসান আখুন্দকে রাঈস-ই-জামহুর বা রাঈস-উল-ওয়াজারা অথবা আফগানিস্তানের নতুন রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে প্রস্তাব করেন। এও জানান, মোল্লা বারাদার আখুন্দ এবং মোল্লা আব্দুস সালাম মোল্লা হাসান আখুন্দের ডেপুটি হিসেবে কাজ করবেন।

মোল্লা হাসান আখুন্দ বর্তমানে তালেবানের প্রবল সিদ্ধান্ত-গ্রহণকারী পরিষদ রেহবারি শূরা বা নীতিনির্ধারণী পরিষদের প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন। তালেবানের তীর্থস্থান হিসেবে পরিচিত কান্দাহারে জন্ম তার। তাকে তালেবানের প্রতিষ্ঠাতাদের অন্যতম একজন হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

তালেবানের আরেক নেতা বলেছেন, মোল্লা হাসান আখুন্দ ২০ বছর ধরে রেহবারি শূরার প্রধান হিসেবে কাজ করছেন এবং তালেবান নেতাদের মধ্যে তার অনেক সুখ্যাতি রয়েছে।

এনডিটিভি জানিয়েছে, অপেক্ষাকৃত স্বল্প পরিচিত হলেও দীর্ঘদিন ধরে দলটির রাজনীতিতে যুক্ত রয়েছেন মোল্লা হাসান আখুন্দ। তালেবানের আগের সরকারেও মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। জাতিসংঘের সন্ত্রাসী তালিকাতেও নাম রয়েছে তার।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1117 seconds.