• ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৮:২৫:০৫
  • ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৮:২৫:০৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

কুবি কর্মকর্তার স্ত্রীর হেনস্তার শিকার ৯ ছাত্রী

ছবি : সংগৃহীত

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি: 

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী  মো. আব্দুল লতিফের স্ত্রীর বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়টির নয় ছাত্রীকে হেনস্তার অভিযোগ উঠেছে। হেনস্তার শিকার ছাত্রীরা আব্দুল লতিফের মালিকানাধীন ‘ইঞ্জিনিয়ার বাড়ি’ নামক মেসের বাসিন্দা৷

২১ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) দুপুরে হেনস্তার অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মো. কামাল উদ্দিন বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন তারা৷

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল ১১ টা থেকে ইঞ্জিনিয়ার বাড়ি মেসের বৈদ্যুতিক লাইন ইচ্ছাকৃতভাবে বন্ধ করে রাখেন নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আব্দুল লতিফের স্ত্রী পান্না। ছাত্রীরা এর প্রতিবাদ জানালে অভিযুক্ত পান্না ও তার গৃহকর্মী শিক্ষার্থীদের দিকে মারমুখী হয়ে ঝাড়ু নিয়ে আসেন। পাশাপাশি অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ ও ছাত্রীদের ব্যাপারে অশালীন মন্তব্য করতে থাকেন।

এক পর্যায়ে ছাত্রীরা আব্দুল লতিফকে ফোন দিলে তিনি দুপুর একটার দিকে এসে পরিস্থিতি অনুকূলে আনার চেষ্টা করলেও তার স্ত্রী বারবার আক্রমণাত্মকভাবে শিক্ষার্থীদের দিকে তেড়ে গিয়েছেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রকৌশল দপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আব্দুল লতিফ বলেন, দুই পক্ষেরই মাথা গরম, তবুও আমি তো ঘটনা মিটমাট করে দিয়ে আসছি। আমার স্ত্রীকে বলেছি, যাতে তিনি শিক্ষার্থীদের বিষয়ে সামনের দিনে কথা না বলেন। ওদের ব্যাপার আমি দেখবো।

এ ঘটনার প্রেক্ষিতে প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন বলেন, আমরা অভিযোগ পেয়েছি। মালিকপক্ষকে ডেকেছি। দুই পক্ষের বক্তব্য শুনে সিদ্ধান্ত জানাবো।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে স্থানীয় কমিশনার ফজল খান বলেন, এরকম ঘটনা অনাকাঙ্খিত। শিক্ষার্থীরা টাকা দিয়ে থাকে, তাদের সাথে এরকম আচরণ করবে কেন। আমি এ ব্যাপারে লতিফকে ডেকে কথা বলবো।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

কুবি ছাত্রী

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0838 seconds.