• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ৩০ অক্টোবর ২০২১ ১৮:৫৪:৫৪
  • ৩০ অক্টোবর ২০২১ ১৮:৫৪:৫৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট : ওপেন রিফ্যাক্টরি পেল ১ লাখ ডলার

ছবি : সংগৃহীত

দেশ-বিদেশের স্টার্টআপদের অনুপ্রাণিত করতে আয়োজিত প্রতিযোগিতা বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট (বিগ)-২০২১ বিজয়ী হয়েছে বাংলাদেশের স্টার্টআপ ‘ওপেন রিফ্যাক্টরি’। আন্তর্জাতিক এই প্রতিযোগিতায় বিজয়ী স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠান এক লাখ মার্কিন ডলার অনুদান পেয়েছে।

শনিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভ অডিটোরিয়ামে প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে অনুষ্ঠানের সভাপতির দায়িত্বে থাকা আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট বিজয়ী স্টার্টআপের নাম ঘোষণা করেন।

তরুণ উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত করতে বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আওতায় বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের অধীনে উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমি প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্প (আইডিয়া) প্রথম বারের মতো আয়োজন করে বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট (বিগ) ২০২১।

এই প্রতিযোগিতা সফলভাবে আয়োজনের জন্য ১২৮টি দেশের প্রচারণা করা হয়। এতে অংশ নেয় বাংলাদেশসহ ৫৭টি দেশের স্টার্টআপ। প্রতিযোগিতায় সাত হাজারেরও বেশি ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান স্টার্টআপ বিজয়ী হওয়ার জন্য আবেদন করে। এর মধ্যে বাংলাদেশের একটি স্টার্টআপ জয়ী হয়ে এক লাখ মার্কিন ডলার পুরস্কার জিতে নেয়।

এ ছাড়া দেশি স্টার্টআপদের নিয়ে অনুষ্ঠিত রিয়েলিটি শো থেকে নির্বাচিত ২৬টি এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ের ১০টি স্টার্টআপ এবং দেশ-বিদেশে নির্বাচিত মোট ৩৬টি স্টার্টআপের প্রত্যেকেই পাচ্ছে ১০ লাখ টাকা করে মোট তিন কোটি ৬০ লাখ টাকার অনুদান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম পিএএ এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) এর নির্বাহী পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব ড. মো. আব্দুল মান্নান, পিএএ । অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইডিয়া প্রকল্পের পরিচালক ও যুগ্মসচিব মো. আব্দুর রাকিব।

অনলাইনে যুক্ত হয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, তরুণ উদ্ভাবকদের সহায়তায় চলতি বাজেটে সরকার ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রেখেছে। আজকের তরুণ উদ্ভাবকরাই দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। তিনি বলেন, অর্থ কোনও সমস্যা নয়। সমস্যাকে সম্ভবনা হিসেবে রূপান্তরিত করেই আমরা সঠিক দিকনির্দেশনায় এগিয়ে যাব।

অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশে স্টার্টআপ ইকোসিস্টেমের যাত্রা শুরু হয় ২০১০ সাল থেকে। বর্তমানে বাংলাদেশে আড়াই হাজারের বেশি স্টার্টআপ কাজ করছে এবং অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। দেশে বর্তমানে ৪০টিরও বেশি এক্সেলেরেটর এবং ইনকিউবেটর প্রোগ্রাম তাদের বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করছে। ইতোমধ্যে বেশ কিছু স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠান দেশে প্রচুর বিনিয়োগ নিয়ে এসেছে, যা আমাদের জন্য গর্বের বিষয়।

সভাপতির বক্তব্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ইনোভেশন ইকোসিস্টেম গড়ে তোলার মাধ্যমে উদ্ভাবনী জাতি গঠন করার লক্ষ্যে অল্প দিনের মধ্যেই একটি স্টার্টআপ পলিসি প্রণয়ন করা হবে। ইতোমধ্যে দেশে আড়াই হাজার উদ্ভাবক তৈরি হয়েছে। তাঁদের ক্ষমতায়নের জন্য আইসিটি বিভাগ থেকে সার্বিক সহায়তা করা হবে। এ সময়, প্রতি বছরই বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট (বিগ) প্রতিযোগিতা হবে বলে ঘোষণা দেন প্রতিমন্ত্রী।

সবশেষে, বিজয়ী ওয়ান বিগ উইনার ২০২১-সহ অন্যান্য বিজয়ী স্টার্টআপদের সম্মাননা প্রদানসহ তাঁদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়।

বিগ-২০২১ গ্র্যান্ড ফিনালে আকর্ষণীয় করে তুলতে বর্ণিল সাজে সাজানো হয় ভেন্যু। উক্ত অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের দেওয়া হয় লালগালিচা সংবর্ধনা। অনুষ্ঠানে বিশেষ আকর্ষণ হিসেবে ছিল সম্প্রতি লন্ডনের বিখ্যাত অ্যাবি রোড স্টুডিওতে ধারণকৃত বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময়ে ‘কনসার্ট ফর বাংলাদেশ’-এর অন্যতম উদ্যোক্তা পণ্ডিত শ্রী রবিশঙ্করের কন্যা আনুশকা শঙ্করের একটি বিশেষ পরিবেশনা। এ ছাড়া ছিল বাংলাদেশের জনপ্রিয় ব্যান্ড দল ক্রিপটিক ফেইটের চমৎকার মিউজিক্যাল পরিবেশনাসহ নানা আয়োজন।

বিগ ২০২১-এর সঙ্গে পার্টনার হিসেবে যুক্ত সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর, বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ, কন্ট্রোলার অব সার্টিফায়িং অথরিটিজ (সিসিএ) ও এটুআই এবং একইসাথে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে বেসিস, বাককো, বিসিএস, ই-ক্যাব, আইএসপিএবি, বিআইজেএফ এবং টিএমজিবি। এ ছাড়া এই আয়োজনের স্পন্সর ওয়ালটন এবং সহযোগিতায় স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেড।

রিয়েলিটি শো থেকে প্রাপ্ত সেরা ২৬ স্টার্টআপ
ওপেনরিফ্যাক্টরি, টিঙ্কার’স টেকনোলজিস লিমিটেড, বন্টন কানেক্ট লিমিটেড, র‍্যাডএসিস্ট, বইঘর ট্রেডিং কেয়ার, অলওয়েল বিডি লিমিটেড, ল্যান্ডনক লিমিটেড, ইনোভেইস টেকনোলজিস, লাইফস্প্রিং কন্সালটেন্সি লিমিটেড, আইডিয়া থ্রী ডি সলিউশনস, ক্যাপ্টেন আর্থ- বি দ্যা চেইঞ্জ, আপস্কিল, সাইকিওর অর্গানাইজেশন, প্লাস্টাইল, ব্রেইলি টেক লিমিটেড, ইনক্লুশন এক্স, স্মার্ট হোয়াইট কেইন, ডিঙ্গি টেকনোলজিস লিমিটেড, গোস্ট কিচেন বাংলাদেশ লিমিটেড, অ্যান্টস এরিয়াল সিস্টেমস লিমিটেড, আলো, সাইনটিকো লিমিটেড, খেলবেই বাংলাদেশ, জোবাইক, অনলাইন সহপাঠী, রোবোল্যাব।

আন্তর্জাতিক সেরা ১০টি স্টার্টআপ
থার্মো নর্থ, মাই ক্যাশ মানি পিটিই লিমিটেড, এগ্রোভিজিও, ইঙ্ক স্পায়ার্ড, ডব্লিউটিম, সোসো কেয়ার, গ্র্যান্ট মাস্টার, বায়ো মেক, ইভরেকা, কেয়ার ফর্ম ল্যাবস প্রাইভেট লিমিটেড।

আইডিয়া প্রকল্পের সেরা ১০টি স্টার্টআপ
অল্টারইয়ুথ, অক্সিজেট, ব্লাডম্যান, ভূমিজো, জাহাজী লিমিটেড, অ্যাডভান্সড ভেইকেল সিকিউরিপিট সিস্টেমস (বাইক লক), দ্যা টু আওয়ারস্ জব, গারবেজম্যান লিমিটেড, অভিযাত্রিক, স্বাধীন মিউজিক লিমিটেড।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0593 seconds.