• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৮ নভেম্বর ২০২১ ১৪:০৯:০৪
  • ১৮ নভেম্বর ২০২১ ১৪:০৯:০৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

দেশে অ্যান্ড্রয়েড টিভি আনল আইটেল

ছবি : সংগৃহীত

এই প্রথম বাংলাদেশের বাজারে অ্যানড্রয়েড টিভি আনল আইটেল। শুরুতে আইটেল জি সিরিজের অ্যানড্রয়েড টিভি এদেশে উন্মোচন করল।

বুধবার ১৭ নভেম্বর রাজধানী ঢাকার এক হোটেলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে প্রথম অ্যানড্রয়েড টিভি বিক্রির ঘোষণা দেয় প্রতিষ্ঠানটি।

আইটেলের অ্যানড্রয়েড টিভি উদ্বোধন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন অভিনেতা মোশাররফ করিম। আরো উপস্থিত ছিলেন ট্রানশান বাংলাদেশ লিমিটেডের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা শ্যামল সাহা, ট্রানশান বাংলাদেশ লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেজওয়ানুল হক, আইটেল টিভির হেড অব সেলস জ্যাক পেই।

ট্রানশান বাংলাদেশ লিমিটেডের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা শ্যামল সাহা বলেন, গ্রাহকদের বিনোদনের সকল চাহিদা পূরণ করতে অ্যানড্রয়েড টেলিভিশনের নতুন ডিভাইস নিয়ে এসেছি। বিনোদন জগতে জনসাধারণের সকলের অংশ নেওয়ার সুযোগ তৈরি করে দিতে জি-সিরিজ অ্যানড্রয়েড টিভিতে ৫০০০+অ্যাপ এবং ১০০০+ স্ট্রিমিং অ্যাপ ব্যবহারের সুযোগ রাখা হয়েছে। ফলে দর্শকরা সহজেই তাদের পছন্দের কনটেন্ট দেখতে ও উপভোগ করতে পারবেন। নতুন নতুন পণ্য তৈরি ও পণ্যের মানউন্নয়নে নিয়োজিত আইটেল টিম টেলিভিশনের প্রধান দুটি দিক যেমন- ডিসপ্লে এবং সাউন্ড এর উপর গুরুত্ব দিয়েছেন। যাতে ভিউয়ারদের টিভি দেখার এবং এর শব্দ শোনার ক্ষেত্রে অসাধারণ অভিজ্ঞতা পান।

অভিনেতা মোশাররফ করিম বলেন, আইটেলের প্রথম অ্যানড্রয়েড টিভি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে থাকতে পেরে সত্যিই আমার অনেক ভালো লাগছে। বাংলাদেশে প্রথম জি-সিরিজ অ্যানড্রয়েড টিভি লঞ্চ এর মধ্য দিয়ে হোম এন্টারটেইনমেন্ট এক দারুণ পর্যায়ে নিয়ে যাবে। সেই সাথে টিভিটি সাশ্রয়ী মূল্যের হওয়ায় অনেকের অ্যানড্রয়েড টিভি কেনার স্বপ্ন পূরণ করবে।

আইটেল জি-সিরিজ অ্যানড্রয়েড টিভির উল্লেখযোগ্য ফিচারগুলো হলো- ৪০০নিট ব্রাইটনেস, ফ্রেমলেস ডিজাইন এবং এ+ গ্রেড প্যানেল।

এর আল্ট্রা-স্লিম বডি ব্যবহারকারীদের টিভি দেখার অন্যন্যসাধারণ সিনেমাটিক ভিউয়ের অভিজ্ঞতা দেবে। এছাড়া এতে রয়েছে ১জিবি র‌্যাম এবং ৮জিবি স্টোরেজ সুবিধা। সেই সাথে এর গুগল প্লে স্টোরের সুবিধা ব্যবহারকারীদের টিভিতে পছন্দের সব অ্যাপস এবং গেম ডাউনলোড করে নিয়ে ব্যবহার করার সুবিধা দেবে।

বিদ্যুতের ভোল্টেজের ওঠানামার ফলে টিভির যাতে কোনো ক্ষতি না হয় এবং বিদ্যুতের খরচ কমানোর জন্য মেটালের চমৎকার ব্যবহারের সঙ্গে ইন-বিল্ট স্টেবিলাইজার যুক্ত করা হয়েছে। জি-সিরিজ টিভিতে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্টের মতো অন্যান্য প্রয়োজনীয় ফিচারগুলোও যুক্ত করা হয়েছে। যাতে ব্যবহারকারীরা তাদের ভয়েস ব্যবহার করে দ্রুত পছন্দের মুভি এবং প্রিয় শো গুলোর খোঁজ করতে পারেন। সেই সাথে এতে ইন-বিল্ট ক্রোমকাস্ট ব্যবহার করায় ব্যবহারকারীরা সহজেই তাদের প্রিয় চলচ্চিত্র, গান এবং পছন্দের অনুষ্ঠান উপভোগ করতে পারবেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0788 seconds.