• বিদেশ ডেস্ক
  • ২২ নভেম্বর ২০২১ ১৬:৪২:৪১
  • ২২ নভেম্বর ২০২১ ১৬:৪২:৪১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

চাঁদে জমি : হিলারির স্বীকৃতির দোহাই দিয়ে ধোঁকাবাজি

ছবি : সংগৃহীত

আমেরিকার সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটনের স্বীকৃতির দোহাই দিয়ে সবাইকে বোকা বানাচ্ছেন ধোঁকাবাজিতে পটু চাঁদে জমির মালিক দাবিদার ডেনিস। তার ওয়েবসাইটে প্রচার করছেন, মার্কিন সরকার তার ছায়াপথের অনুমোদন দিয়েছে। কিন্তু হিলারির দেওয়া সনদে স্পষ্ট লেখা আছে- এসবের দায় দায়িত্ব মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের নয়।

ডেনিস এম হোপ, চরম ধোঁকাবাজ এক মানুষ। যিনি নিজেকে সূর্য আর পৃথিবী ছাড়া চাঁদ-মঙ্গলসহ সব গ্রহ-উপগ্রহের মালিক দাবি করে সারা দুনিয়ায় রীতিমতো সাড়া ফেলেছেন। চটকদার বিজ্ঞাপন দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছেন কোটি কোটি টাকা।

এক বিজ্ঞাপনে দেখা যায়, ছোট্ট এক শিশু চাঁদ দেখিয়ে বাবা-মা’র মনোযোগ আকর্ষণের চেষ্টা করছে। বাবা-মা শিশুটিকে চাঁদ উপহার দেওয়ার কথা জানালে শিশুটি অবাক হয়ে তাকিয়ে থাকে।

মানুষকে লোভনীয় ফাঁদে ফেলতে হোপ সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটনের একটি সনদও প্রদর্শন করেছেন, যেখানে মার্কিন সরকার তার গ্যালাকটিক বা ছায়াপথের সার্বভৌমত্ব স্বীকার করে। কিন্তু বাস্তবে তার ওয়েবসাইটে দেখা যায়, ওয়াশিংটন ডিসির লাইব্রেরি অব কংগ্রেস কপিরাইট অফিসে অনুমোদনের জন্য একটি সিল জমা দেওয়া হয়। যেটি ২০০৯ সালের ৮ ডিসেম্বর ঐ দপ্তরে নথিভুক্ত হয়। ওই কপি ৯ ডিসেম্বর ইউনাইটেড স্টেট অব আমেরিকার তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি রডহাম ক্লিনটনের কাছে যায়। সেই সার্টিফিকেটে সিলের বিষয়টি উল্লেখ করলেও হিলারি নিচের অংশে তারকা চিহ্নিত করে লেখেন, এর দায় দায়িত্ব তার অফিসের নয়। অর্থাৎ একটি সিল দেখিয়েই ডেনিস এম হোপ মানুষকে ধোঁকা দিচ্ছেন।

মানুষের সখের শেষ নেই। আর চাঁদে এক টুকরো জমি হলে তো কথাই নেই। শেষমেষ প্রতারণার স্বীকার হয়ে যখন সর্বস্ব হারায় তখনই হুঁশ হয়। এ ধরনের প্রতারণার ফাঁদ থেকে সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0691 seconds.