• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৭ এপ্রিল ২০২২ ১২:০৩:৫২
  • ১৭ এপ্রিল ২০২২ ১২:০৩:৫২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ধর্ষণের অভিযোগের পর পলাতক মাদ্রাসার অধ্যক্ষ

ছবি : সংগৃহীত

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের আমানউল্যাহপুরের জয়নারায়নপুর ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আবু আবছার মো. মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে ছাত্র-ছাত্রীদের ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) তাকে বহিষ্কারসহ আইনের আওতায় আনার দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।  

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের আমানউল্যাহপুর ইউনিয়নের জয়নারায়নপুর ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসায় ২০২১ সালের ১৬ নভেম্বর অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয় আবু আবছার মো. মিজানুর রহমানকে। 

তার বিরুদ্ধে প্রায় সময় মাদ্রাসার ছাত্রদের ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গত ফেব্রুয়ারি মাসেই তার হাতে শারীরিক নির্যাতনের শিকার হন মাদ্রাসার নবম শ্রেণীর এক ছাত্র। এর আগেও চারজন তার নির্যাতনের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। 

এলাকাবাসীর অভিযোগ, জনপ্রতিনিধিদের ছত্রছায়ায় এবং ম্যানেজিং কমিটিকে ম্যানেজ করে এসব অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছেন মিজানুর রহমান। 

এদিকে এ ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন মাদ্রাসার শিক্ষার্থী-অভিভাবক ও সাবেক শিক্ষার্থীরা।  মানববন্ধন বিক্ষোভ সমাবেশ করে তারা দ্রুত সময়ে অধ্যক্ষকে অপসারণ করার দাবি জানান। 

মাদ্রাসার শিক্ষকদের দাবি, একজনের দোষের কারণে পুরো প্রতিষ্ঠানের বদনাম হোক এটি তারা চাননা। তাই দ্রুত সময়ে এটির সমস্যা সমাধানে তারা মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির হস্তক্ষেপ কামনা করেন। 

অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ ওঠার পর গত ২৮ মার্চ তিনি ছুটি নিয়ে মাদ্রাসা থেকে চলে যান। তার কক্ষে গিয়ে তালা ঝুলতে দেয়া যায়। মুঠোফোনে বারবার চেষ্টা করেও তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। 

মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির অভিভাবক সদস্য আক্তার হোসেন জানান, তারা এ বিষয়ে পরিচালনা কমিটির সভা করেছেন এবং মাদ্রাসা সভাপতির সাথে আলোচনা করে অধ্যক্ষকে মাদ্রাসা থেকে অপসারণের ব্যাপারে কাজ করছেন। 

বেগমগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মীর জাহিদুল হক রনি জানান, এ ব্যাপারে থানায় কোনো অভিযোগ করা হয়নি। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.2876 seconds.