• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২২ এপ্রিল ২০২২ ২০:২৩:৪২
  • ২২ এপ্রিল ২০২২ ২০:২৩:৪২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

মোবাইল মেরামত করতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ

ছবি : সংগৃহীত

ঢাকার আশুলিয়ায় মোবাইল মেরামত করতে গিয়ে এক গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত দোকানী আল মামুন (২৪) ও এক সহযোগী অলী মোল্লাকে (২২) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার দুপুরে গ্রেফতারকৃত দুজনকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে আশুলিয়ার জামগড়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আল মামুন শরীয়তপুরের জাজিরা থানাধীন চেরাগ আলী বেপারীপাড়া এলাকার খবির হোসেনের ছেলে। তিনি আশুলিয়ার গাজীরচট এলাকায় ভাড়া বাসায় থেকে মোবাইল সার্ভিসিংয়ের কাজ করেন। মোহাম্মদ অলী মোল্লা মানিকগঞ্জের দৌলতপুর থানাধীন জিয়ানপুর এলাকার শামসুল আলমের ছেলে। তিনি আশুলিয়ার শিমুলতলা এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূ অভিযুক্ত আল মামুনের মোবাইল সার্ভিসিংয়ের দোকানে মোবাইল মেরামত করতে গিয়ে পরিচয় হয়। এরপর থেকেই মামুন বিভিন্নভাবে ওই গৃহবধূকে বিরক্ত করতে থাকেন। একপর্যায়ে মোবাইল ঠিক করার কথা বলে বৃহস্পতিবার দুপুরে মামুন ওই গৃহবধূকে কৌশলে শিমুলতলায় অলীর ভাড়া বাসায় ডেকে নিয়ে যান। ওখানে নিয়ে জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করেন। অলী মোল্লা দরজার বাইরে থেকে পাহারা দেন। পরে ওই দিন সন্ধ্যায় আশুলিয়া থানায় ওই গৃহবধূ লিখিত অভিযোগ দেন। রাতেই অভিযুক্ত আল মামুন ও সহযোগী অলী মোল্লাকে আটক করে পুলিশ।

আশুলিয়া থানার পরিদর্শক জিয়াউল ইসলাম জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত দুজনকেই গ্রেফতার করা হয়েছে এবং রাতেই মামলা রুজু করা হয়েছে। এছাড়া শুক্রবার আসামিদের আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ধর্ষণ

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.2748 seconds.