• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২৩ এপ্রিল ২০২২ ১৪:০১:০০
  • ২৩ এপ্রিল ২০২২ ১৪:০১:০০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ইমামের বেতনের টাকা তোলা নিয়ে সংঘর্ষে একজন নিহত

ছবি : সংগৃহীত

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় তারাবীর নামাজ পড়ানোর জন্য নিযুক্ত ইমামের বেতনের টাকা তোলা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে খোরশেদ আলম (৬৫) নামে এক দিনমজুর নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার (২২ এপ্রিল) দুপুরে রায়গঞ্জ উপজেলার চকমনোহরপুর গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

শনিবার (২৩ এপ্রিল) ভোররাতের দিকে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। 

খোরশেদ আলম থানার চকমনোহরপুর গ্রামের মৃত কছিমুদ্দিনের ছেলে। এসময় উভয় গ্রুপের পাঁচজন আহত হয়েছেন।

স্থানীয়রা জানান, চকমনোহরপুর গ্রামের আকতার হোসেন গ্রুপের সঙ্গে একই গ্রামের  খোরশেদ গ্রুপের আগে থেকে বিরোধ চলে আসছিল। 

শুক্রবার জুমার নামাজ শেষে তারাবী নামাজ পড়ানো ইমামের টাকা তোলা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে মসজিদের মধ্যেই উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। 

পরে আকতার গ্রুপের লোকজন অতর্কিত হামলা চালালে খোরশেদ আলম ঘটনাস্থলেই গুরুত্বর আহত হন। 

তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। 

নিহতের ছোট ভাই মন্টু জানান, তার ভাই একজন কৃষি দিনমজুর। ইমামের বেতনের কথা বলতে গেলে আকতার গ্রুপের লোকজন তার ওপর হামলা করে ।

সলঙ্গা  থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাদের জিলানী জানান, তারাবীর নামাজ পড়ানোর জন্য নিযুক্ত ইমামের বেতনের টাকা তোলা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে খোরশেদ আলম গুরুত্বর আহত হন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। 

ওসি আরও জানান, নিহতের মরদেহ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ইমাম

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.2625 seconds.