• ০১ জুন ২০২২ ১৩:৩৯:৩০
  • ০১ জুন ২০২২ ১৩:৩৯:৩০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

‘যৌন হয়রানি প্রতিরোধে ছাত্রীদেরকেই সাহস করে এগিয়ে আসতে হবে’

ছবি : সংগৃহীত

ইবি প্রতিনিধি: 

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ভিসি প্রফেসর ড. শেখ আবদুস সালাম বলেছেন, সচেতনতা তৈরি হতে হবে ছাত্রীদের নিজেদের ভিতর থেকেই। মুখ বুঁজে থাকলে চলবে না। যৌন হয়রানি প্রতিরোধে ছাত্রীদেরকেই আত্মবিশ্বাস নিয়ে সাহস করে সামনে এগিয়ে আসতে হবে। যৌন হয়রানির শিকার ছাত্রীকে অভিযোগ বক্সের মাধ্যমে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ জানাতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন অবশ্যই অভিযোগের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

মঙ্গলবার (৩১ মে) রাতে দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলে যৌন নিপীড়ন বিষয়ে সচেতনতামূলক আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন ভিসি প্রফেসর ড. শেখ আবদুস সালাম। বিশ্ববিদ্যালয়ে যৌন নিপীড়ন প্রতিরোধে গঠিত অভিযোগ কমিটি এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অভিযোগ কমিটির আহ্বায়ক আইন বিভাগের প্রফেসর ড. রেবা মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. মাহবুবুর রহমান। কমিটির সদস্য-সচিব উপ-রেজিস্ট্রার আলমগীর হোসেন খানের সঞ্চালনায় এসময় বক্তব্য প্রদান করেন দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মোঃ শামসুল আলম, কমিটির সদস্য ও মুক্তি নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক বীর মুক্তিযোদ্ধা মমতাজ আরা বেগম, কমিটির সদস্য ও প্রভাতী পল্লী উন্নয়ন সংস্থার পরিচালক বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল আলম। এসময় লালন শাহ হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. ওবায়দুল ইসলাম, আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. হালিমা খাতুন, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জয়শ্রী সেন সহ বিশ^বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষক ও আবাসিক ছাত্রীরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন করেন উপ-রেজিস্ট্রার (প্রশাসন-১) ও ফোকাল পয়েন্ট কর্মকর্তা (এপিএ) ড. মোঃ নওয়াব আলী।

এর আগে যৌন নিপীড়ন বিষয়ে সচেতনতামূলক প্রচার অভিযানের অংশ হিসেবে গত ২৯ মে খালেদা জিয়া হল এবং ও ৩০ মে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলে সচেতনতামূলক আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

যৌন হয়রানি

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.3277 seconds.