• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ৩০ জুন ২০২২ ১৫:৫০:৫২
  • ৩০ জুন ২০২২ ১৫:৫০:৫২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

আজ শিক্ষক উৎপলের বিবাহবার্ষিকী, অঝোরে কাঁদছেন স্ত্রী

ছবি : সংগৃহীত

সাভারের আশুলিয়ার হাজী ইউনুছ আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক উৎপল কুমার সরকারকে গত ২৫ জুন দুপুরে স্টাম্প দিয়ে বেধড়ক মারধর করে তারই ছাত্র আশরাফুল ইসলাম জিতু। এরপর ২৭ জুন এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। আজ এই শিক্ষকের তৃতীয় বিবাহবার্ষিকী।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) উৎপল কুমার সরকারের স্ত্রী বিউটি রানী নন্দী কাঁদতে কাঁদতে গণমাধ্যমকে বলেন, আমি আর উৎপল দুজনই চাকরিজীবী। উৎপল কলেজে আর আমি সেতু বিভাগে চাকরি করি। গত বছর বিবাহবার্ষিকীতে আমরা দুজন দুই জায়গায় ছিলাম। তাই বিবাহবার্ষিকী পালন করতে পারিনি। এবার উৎপলের ইচ্ছা ছিল, ধুমধাম করে বিবাহবার্ষিকী পালন করার। সেটা আর হলো না।

জানা গেছে, উৎপল চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর শেষ করে ১০ বছর ধরে আশুলিয়ার চিত্রশাইল এলাকার হাজী ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। স্ত্রী বিউটি রানী নন্দী ইডেন মহিলা কলেজ থেকে স্নাতোকোত্তর শেষ করে সেতু বিভাগে কর্মরত।

২০১৯ সালের ৩০ জুন পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় উৎপল ও বিউটির। উৎপল সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের এলংজানী গ্রামের মৃত অজিত সরকারের ছেলে। তিনি আট ভাই-বোনের মধ্যে সবার ছোট। বিউটি রানী মণ্ডল একই জেলার শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরি ইউনিয়নের মৃত শংকর নন্দীর মেয়ে।

উৎপলের এলাকাবাসী জানায়, প্রায় ২২ বছর আগে উৎপলের বাবা মারা গেছেন। অনেক কষ্ট করে তিনি পড়ালেখা করেছেন। কখনো কারও মনে কষ্ট দিয়ে তিনি কথা বলতেন না।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

শিক্ষক উৎপল কুমার সরকার

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1050 seconds.