• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০২ জুলাই ২০২২ ১৪:২৭:০১
  • ০২ জুলাই ২০২২ ১৪:২৭:০১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

তিন মাসে পাগলা মসজিদের সিন্দুকে মিললো সাড়ে ১৬ বস্তা টাকা

ছবি : সংগৃহীত

তিন মাস ২০ দিন পর খোলা হয়েছে কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক পাগলা মসজিদের দান সিন্দুক। শনিবার (২ জুলাই) সকাল ৮টায় জেলা প্রশাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণের উপস্থিতিতে মসজিদের আটটি দান সিন্দুক খুলে মোট সাড়ে ১৬ বস্তা টাকা পাওয়া গেছে। এছাড়াও রয়েছে প্রচুর পরিমাণে বৈদেশিক মুদ্রা ও স্বর্ণালঙ্কার। এখন চলছে গণনার কাজ। শেষ হতে সন্ধ্যা হয়ে যাবে।

এর আগে, সর্বশেষ গত ১২ই মার্চ দান সিন্দুক খোলা হয়েছিল। তখন এ যাবৎকালের সর্বোচ্চ তিন কোটি ৭৮ লাখ ৫৩ হাজার ২৯৫ টাকা পাওয়া গিয়েছিল। সে সময় দান সিন্দুক খোলার পর ১৫ বস্তা টাকা হয়েছিল। এবার সাড়ে ১৬ বস্তা টাকা হওয়ায় গতবারের চেয়ে এবার টাকার পরিমাণ বেশি হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সাধারণত তিন মাস পর পর পাগলা মসজিদের দান সিন্দুক খোলা হয়। কিন্তু বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দান সিন্দুর খোলার সময়ের ব্যবধান বাড়ানো হয়েছে। এবার ৩ মাস ২০ দিন পর দান সিন্দুক খোলা হয়।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, শনিবার সকাল ৮টায় জেলা প্রশাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণের উপস্থিতিতে মসজিদের আটটি দান সিন্দুক খোলা হয়। কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা’র তত্ত্বাবধানে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. উবায়দুর রহমান সাহেল ও মাহবুব হাসান, পাগলা মসজিদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. শওকত উদ্দীন ভূঞা, রূপালী ব্যংকের এজিএম মো. রফিকুল ইসলাম প্রমুখ টাকা গণনার কাজ তদারকি করছেন। এছাড়া পাগলা মসজিদের সদস্য সিনিয়র সাংবাদিক সাইফুল হক মোল্লা দুলু সহ জেলা প্রশাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণ উপস্থিত রয়েছেন।

 

সংশ্লিষ্ট বিষয়

পাগলা মসজিদ

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.2781 seconds.