• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৯ জুলাই ২০২২ ১৩:৩৮:৫৫
  • ২৯ জুলাই ২০২২ ১৩:৩৮:৫৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

২ ঘণ্টা ১৭ মিনিট কথা বললেন বাইডেন-জিনপিং

ছবি : সংগৃহীত

দুই দেশের প্রেসিডেন্ট টেলিফোনে দুই ঘণ্টার বেশি সময় ধরে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ২ ঘণ্টা ১৭ মিনিট ফোনালাপ করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) তাদের এই ফোনালাপ অনুষ্ঠিত হয়। হোয়াইট হাউজ এই তথ্য জানিয়েছে। বিবিসি ও বার্তা সংস্থা এএফপির  প্রতিবেদনে বিষয়টি জানা গেছে।

হোয়াইট হাউজ জানিয়েছে, ফোনালাপের বিষয়ে পরে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হবে।

ক্ষমতা গ্রহণের পর চীনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বাইডেনের এটি পঞ্চম কথোপকথন। তবে চার মাসের মধ্যে এটিই ছিল তাদের প্রথম টেলিফোন আলাপ। তাইওয়ান, ক্রমবর্ধমান বাণিজ্য বিরোধের মধ্যে দুই পরাশক্তির উত্তেজনার মধ্যে এই ফোনালাপ হলো।

এমন অবস্থায় মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির সম্ভাব্য তাইওয়ান সফর নিয়ে ওয়াশিংটন- বেইজিং সম্পর্ক নতুন মোড় নিয়েছে।

বেইজিং সতর্ক করে বলেছে, স্বশাসিত দ্বীপ তাইওয়ানে পেলোসি যদি সফরের পরিকল্পনা এগিয়ে নেন তাহলে চীন জোরালো পদক্ষেপ নেবে। তাইওয়ানকে নিজেদের বিচ্ছিন্নতাবাদী প্রদেশ বলে দাবি করে বেইজিং।

তাইওয়ান সফরের পরিকল্পনা এখনও নিশ্চিত করেননি পেলোসি। তবে গত সপ্তাহে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সাংবাদিকদের বলেন, তাইওয়ানে স্পিকার পেলোসির সফরকে ভালো পরিকল্পনা বলে মনে করেন না সেনা কর্মকর্তারা।

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ফোনালাপে বাইডেনকে চীনের প্রেসিডেন্ট বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রকে ‘ওয়ান চায়না’ নীতি মেনে চলতে হবে। ‘ওয়ান চায়না’ নীতির মূল কথা হচ্ছে তাইওয়ান চীনের অন্তর্ভুক্ত। এটা নিয়ে কারও নাক গলানোর প্রয়োজন নেই।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বাইডেন-জিনপিং

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0673 seconds.